পোশাক খাতে ১০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের ক্রয়াদেশ পেয়েছে বাংলাদেশ

   আগস্ট ২, ২০২১

শেয়ারবার্তা ২৪ ডটকম: চলতি বছরের জুন ও জুলাই মাসে তৈরি পোশাকের প্রায় ১০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের ক্রয়াদেশ পেয়েছে বাংলাদেশ। দেশি টাকায় এর পরিমাণ ৮৫ হাজার কোটি টাকা। এর সিংহভাগ এসেছে ইউরোপীয় ইউনিয়নের বিভিন্ন দেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের ক্রেতাদের কাছ থেকে। শর্ত অনুযায়ী, এসব ক্রয়াদেশ চলতি আগস্ট ও সেপ্টেম্বরের মধ্যে শিপমেন্ট করতে হবে।

করোনার লকডাউনে দেশে পোশাক কারখানা বন্ধ থাকায় বায়ারদের নির্ধারিত শিডিউল অনুযায়ী ক্রয়াদেশ পূরণে শঙ্কা তৈরি হয়। কারণ উৎপাদন-সক্ষমতা অনুযায়ী, ক্রয়াদেশ পাওয়া বেশির ভাগ কারখানার শিডিউল আগামী বছরের মার্চ-এপ্রিল পর্যন্ত বুকিং হয়ে গেছে। আরও ক্রয়াদেশ পাইপলাইনে রয়ে গেছে। কিন্তু কারখানা বন্ধ থাকায় শঙ্কিত ছিলেন ক্রেতারা।

ক্রেতাদের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছিল, শিডিউল অনুযায়ী শিপমেন্ট ডেলিভরি যাতে কোনো অবস্থাতেই হেরফের না হয়। যদি এ রকম কোনো আশঙ্কা থাকে, তাহলে তাদের আগেভাগেই জানিয়ে দিতে, যাতে তারা এই অর্ডার সময় থাকতেই প্রতিযোগী অন্য কোনো দেশে সরিয়ে নিতে পারেন।

তা ছাড়া প্রথমবারের মতো ভারত ও মিয়ানমারে ইউরোপ-আমেরিকার ক্রেতাদের ক্রয়াদেশ বাংলাদেশে স্থানান্তরিত হয়েছে। আগে থেকেই চীন থেকে স্থানান্তরিত বিপুল পরিমাণ অর্ডারও বাংলাদেশে এসেছে। প্রতিনিয়ত আসছে। ফলে এসব ক্রয়াদেশের শিডিউল রক্ষার চাপ উদ্যোক্তাদের সামনে এসে দাঁড়িয়েছে। যে কারণে তাদের হাতে কারখানা চালু এবং উৎপাদন অব্যাহত রাখার কোনো বিকল্প ছিল না।

সংশ্লিষ্ট উদ্যোক্তারা বলছেন, বিশ্বের অনেক ক্রয়াদেশ যেখানে বাতিল হয়ে যাচ্ছে, সেখানে বাংলাদেশের পাওয়া এই বিপুল পরিমাণ ক্রয়াদেশ তৈরি পোশাক খাতের সংকট দূর ও রপ্তানির লক্ষ্যমাত্রা অর্জনেই শুধু সহায়ক হবে না, বরং করোনায় সৃষ্ট দেশের মন্দা অর্থনীতির উত্তরণেও সহায়ক হবে। এ কারণে এই বিপুল ক্রয়াদেশ তারা কিছুতেই হাতছাড়া করতে চাননি।

মূলত রপ্তানি আদেশ বাঁচাতেই সরকারকে বুঝিয়ে দেশে বন্ধ থাকা তৈরি পোশাক কারখানাগুলো তড়িঘড়ি করে খোলার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন পোশাকশিল্পের মালিকরা। নিট পোশাকশিল্পের মালিকদের সংগঠন বিকেএমইএর প্রথম সহসভাপতি মোহাম্মদ হাতেম নিউজবাংলাকে জানান, রোববার কারখানা খোলা হলেও প্রথম দিন শ্রমিকের উপস্থিতি ছিল খুবই কম। সকালে শ্রমিকের উপস্থিতি ছিল ৫০ শতাংশ, দুপুরের পর তা ৭০ শতাংশে উন্নীত হয়।

এক প্রশ্নে জবাবে তিানি বলেন, ‘১০ বিলিয়ন ডলারের ক্রয়াদেশ বাঁচাতে কারখানা খোলা হয়েছে। জুলাই মাসের প্রথম ১৯ দিনে কারখানা চালু থাকা অবস্থায় ২ দশমিক ২৩ বিলিয়ন ডলারের রপ্তানি হয়েছে। এটা আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় ৩৩ দশমিক ৫৭ শতাংশ বেশি। ‘এ ধারার রপ্তানি অব্যাহত রাখা গেলে শুধু জুলাইতেই সাড়ে ৩ বিলিয়ন ডলারের রপ্তানি সম্ভব হতো। কিন্তু গত আট দিন কারখানা বন্ধ থাকায় সেটি হয়নি।

‘দিন যত যাচ্ছে, রপ্তানির ক্রয়াদেশ এবং শিপমেন্টের তাগিদ তত বাড়ছে। এখনই যে হারে রপ্তানি আদেশ রয়েছে, তা যদি গড় হিসাবে কমপক্ষে সাড়ে তিন বিলিয়ন ডলারই ধরি, তাহলেও উদ্যোক্তাদের হাতে ১০ বিলিয়ন ডলারের বেশি ক্রয়াদেশ রয়েছে। ফলে কারখানা খোলা জরুরি ছিল। সেটি খুলেছে, এতেই আমরা সন্তুষ্ট। তবে লকডাউন শিথিল না হওয়া পর্যন্ত শতভাগ শ্রমিকের উপস্থিতির কোনো বাধ্যবাধকতা নেই। শ্রমিকরা তাদের সুবিধাজনক সময়ে কর্মস্থলে হাজির হলেই হলো।’

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ কর্তৃক জারি হওয়া লকডাউনের প্রজ্ঞাপনে গত ২৩ জুলাই থেকে রপ্তানিমুখী তৈরি পোশাক কারখানাও বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত হয়। সেই থেকে টানা আট দিন বন্ধ থাকে সব পোশাক কারখানা। যদিও এর আগে সর্বশেষ গত ২৮ জুন শুরু হওয়া সীমিত ও পরে ১ জুলাই থেকে চলমান কঠোর বিধিনিষেধেও চালু ছিল তৈরি পোশাক কারখানা। ওই সময়েই (জুন-জুলাই) মূলত এই বিপুল পরিমাণ অর্ডার পায় পোশাকশিল্পের মালিকরা।

তৈরি পোশাকশিল্পের মালিকদের দুই সংগঠন বিজিএমইএ ও বিকেএমইএর তথ্যমতে, আন্তর্জাতিক ক্রেতার কাছে তৈরি পোশাকের সবচেয়ে বেশি চাহিদা তৈরি হয় বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে। অর্থাৎ জুলাই-আগস্ট ও সেপ্টেম্বরে। কারণ এই সময়ে লেট সামারের ক্রয়াদেশ সরবরাহে চাপ থাকে। এ ছাড়া বিশ্বজুড়ে শীতকালীন বস্ত্রের চাহিদার প্রায় শতভাগ কার্যাদেশও পাওয়া যায় এই তিন মাসের উৎপাদন, জাহাজীকরণ ও সরবরাহ পর্যায় থেকে।

এ ছাড়া প্রতিবছর ২৫ ডিসেম্বর পালিত হয় খ্রিষ্টান ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব ‘বড়দিন’। বিশ্বের সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষ এই উৎসবের সঙ্গে সম্পৃক্ত। বড়দিনের উৎসব ঘিরেও তৈরি পোশাকের আরেকটা বড় চাহিদা তৈরি হয় বিশ্বব্যাপী। ফলে বায়ারদের প্রয়োজনীয় আগাম কার্যাদেশও দেয়া হয় এই তিন মাসের মধ্যে।

সংশ্লিষ্টদের মতে, তৈরি পোশাকের উৎপাদন ও সরবরাহে বরাবরই বাংলাদেশ বিশ্বে দ্বিতীয়। এ বছর অবশ্য ভিয়েতনাম শীর্ষ ২-এ উঠে যায়। পোশাকের আন্তর্জাতিক ক্রয়াদেশের একটা উল্লেখযোগ্য অংশ সব সময়ই বাংলাদেশ পেয়ে আসছে। এ বছরও তার ব্যতিক্রম হয়নি।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বাংলাদেশ গার্মেন্টস ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিজিএমইএ) সভাপতি মো. ফারুক হাসান জানান, ‘আমাদের হাতে কারখানা খোলা ও উৎপাদন অব্যাহত রাখা ছাড়া উপায় ছিল না। ফলে বাধ্য হয়ে আমরা সরকারের দ্বারস্থ হয়েছিলাম। আমরা সরকারের কাছে কৃতজ্ঞ এ কারণে যে, সরকার সার্বিক বাস্তবতা আন্তরিকভাবে অনুভব করে অর্থনীতি বাঁচাতে রপ্তানিমুখী পোশাক কারখানাগুলো খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এতে উদ্যোক্তা, শ্রমিক-কর্মচারী তথা সবার আর্থিক সংকট দূর হবে। অর্থনীতিও সচল থাকবে।’

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে কারখানার উৎপাদন চালিয়ে যাব। হাতে প্রচুর কাজ। উৎপাদন চালু থাকলে বায়ারদের শিডিউল মেনে আমরা সব ক্রয়াদেশের শিপমেন্ট দিতে সক্ষম হব। এর মাধ্যমে চলতি বছর পোশাক খাতে ৩৫ দশমিক ১৪ বিলিয়ন ডলারের যে রপ্তানি লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে, আমরা তার চেয়েও বেশি প্রবৃদ্ধি অর্জনে সক্ষম হব।’

বস্ত্র খাতের ২৬ কোম্পানিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগের হিড়িক

Auther Admin  সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২১

শেয়ারবার্তা ২৪ ডটকম, ঢাকা: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বস্ত্র খাতে ২৬ কোম্পানিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগের হিড়িক পড়ছে। জুলাই মাসের তুলনায় আগস্ট মাসে প্রাতিষ্ঠানিক...

পুঁজিবাজার থেকে তালিকাচ্যুত হচ্ছে ২৯ কোম্পানি

Auther Admin  সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২১

শেয়ারবার্তা ২৪ ডটকম, ঢাকা: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত দীর্ঘদিন ওটিসি মার্কেটে থাকা ২৯ কোম্পানি তালিকাচ্যুত বা অবসায়ন হচ্ছে। কোম্পানিগুলোকে পুঁজিবাজার থেকে আইন...

বিএসইসি ও বাংলাদেশ ব্যাংক ডিভিডেন্ডের বিষয় ফয়সালা করবে: অর্থমন্ত্রী

Auther Admin  সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২১

শেয়ারবার্তা ২৪ ডটকম: পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) সিদ্ধান্তই সরকারের সিদ্ধান্ত বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম...

চার কোম্পানির লেনদেন খতিয়ে দেখতে ডিএসইকে নির্দেশ

Auther Admin  সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২১

শেয়ারবার্তা ২৪ ডটকম: ওভার দ্যা কাউন্টার মার্কেট (ওটিসি) থেকে মূল মার্কেটে ফেরা চার কোম্পানির শেয়ার কারসাজি (স্বাভাবিক দাম বৃদ্ধির) খতিয়ে দেখতে...

হঠাৎ কোম্পানিগুলোর গৎবাঁধা উত্তরে হার্ডলাইনে যাচ্ছে বিএসইসি!

Auther Admin  সেপ্টেম্বর ৭, ২০২১

শেয়ারবার্তা ২৪ ডটকম: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর গৎবাঁধা উত্তরে হঠাৎ হার্ডলাইনে যাচ্ছে বিএসইসি। তবে করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও দেশের পুঁজিবাজার গতিশীল রয়েছে। বিনিয়োগকারীদের...

অযৌক্তিক বোনাস শেয়ার ইস্যুতে হার্ডলাইনে বিএসইসি

Auther Admin  সেপ্টেম্বর ৫, ২০২১

শেয়ারবার্তা ২৪ ডটকম: অযৌক্তিক বোনাস শেয়ারের লাগাম টানতে এবার কঠোর হলো নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। বিষয়টি নিয়ে...

অর্থনীতির সাথে এগিয়ে যাবে দেশের পুঁজিবাজার: শিবলী রুবাইয়াত

Auther Admin  সেপ্টেম্বর ৪, ২০২১

শেয়ারবার্তা ২৪ ডটকম: বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম বলেছেন, বিনিয়োগকারীদের বিনিয়োগের সুরক্ষা দিতে পারলে...

পুঁজিবাজার ধসের সম্ভাবনা নেই, সূচক যাবে ২০ হাজার পয়েন্ট: রকিবুর রহমান

Auther Admin  সেপ্টেম্বর ৪, ২০২১

শেয়ারবার্তা ২৪ ডটকম: পুঁজিবাজার এখন আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। দুর্বল কোম্পানি থেকে বিনিয়োগকারীরা এখন মৌলভিত্তিক কোম্পানিতে বিনিয়োগ শুরু করেছেন। বাজার আর পড়বে...

ডিএসই-সিএসই’র সূচকে নতুন রেকর্ড, সূচক ৭ হাজার ছুঁইছুঁই

Auther Admin  সেপ্টেম্বর ২, ২০২১

শেয়ারবার্তা ২৪ ডটকম: পুঁজিবাজারে সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে সূচকের বড় উত্থানে লেনদেন শেষ হয়েছে। ১১ বছর পর পুঁজিবাজারে মাইফলক ছুঁতে যাচ্ছে...