Deshprothikhon-adv

পুঁজিবাজারে দীর্ঘমেয়াদে বিনিয়োগের উপযোগী যে সকল কোম্পানি

0

indexশেয়ারবার্তা ২৪ ডটকম, ঢাকা: পুঁজিবাজার ধীরে ধীরে স্থিতিশীলতার দিকে যাচ্ছে। তবে বাজার স্থিতিশীলতার দিকে গেলেও কিছু দুর্বল মৌল ভিত্তি শেয়ারের দরবৃদ্ধিতে বিনিয়োগকারীরা দু:চিন্তায় পড়েছেন। তাই বাজারের স্বার্থে দীর্ঘমেয়াদী বিনিয়োগ করা প্রয়োজন। তবে বিনিয়োগকারীরা কোন খাতের শেয়ারে বিনিয়োগ করবেন তা তারা বুঝে উঠতে পারছে না। বিশেষ করে বাজারে নানা গ্রুপ রয়েছে এরা বিনিয়োগকারীদের শেয়ার কেনার ক্ষেত্রে বিভ্রান্ত করছে।

নিয়মবহির্ভুতভাবে যে সব কোম্পানির শেয়ার দর বৃদ্ধির মূল উদ্দেশ্যই হচ্ছে সাধারণ ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের আকৃষ্ট করা। মূলত পুঁজিবাজারে কয়েকটি গ্রুপ রয়েছে যারা গ্যামব্লিংসহ নানারকম নিয়মবহির্ভুত কাজের সাথে জড়িত। তারাই কোম্পানিগুলোর শেয়ার দর অযৌক্তিকভাবে বৃদ্ধি করছে।

বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পের উপকরণ সরবরাহকারীরা ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়েছেন। মাঝারি ও ছোট ব্যবসায়ীরাও ভালো ব্যবসা করেছেন। এসব ঋণের বিপরীতে সুদ হিসাবই ব্যাংকগুলোর পরিচালন মুনাফা বাড়িয়ে দিয়েছে।

এ কারণে ডিসেম্বর মাসে একাধিক পর্ষদ সভাও করতে হয়েছে। এতে পরিচালন মুনাফাও বেড়েছে। ঋণ নবায়নে বিশেষ ছাড় ও পুনর্গঠন করা ঋণ নিয়মিত থাকার প্রভাবও পড়েছে মুনাফায়। এতে আগের বছরের তুলনায় ২০১৬ সালে ব্যাংকগুলোর পরিচালন মুনাফা বাড়ার তথ্য পাওয়া যাচ্ছে।

তবে এ হিসাব প্রাথমিক্| চূড়ান্ত হিসাব শেষে পরিচালন মুনাফা থেকে সঞ্চিতি ও কর কেটে প্রকৃত মুনাফা মিলবে| শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ব্যাংকগুলোর কর কেটে রাখা হবে ৪০ শতাংশ, অন্যগুলোর সাড়ে ৪২ শতাংশ ও নতুন ব্যাংকগুলোর ৪০ শতাংশ।

বিশ্লেষণে দেখা গেছে, আগের বারের মতোই এবারও পরিচালন মুনাফায় শীর্ষে রয়েছে বেসরকারি খাতের ইসলামী ব্যাংক। প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, ২০১৬ সাল শেষে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড ২ হাজার ৩ কোটি টাকার পরিচালন মুনাফা করেছে। ২০১৫ সালে ব্যাংকটির পরিচালন মুনাফা ছিল ১ হাজার ৮০৮ কোটি টাকা। এ হিসাবে বিদায়ী বছরে ব্যাংকটির পরিচালন মুনাফা বেড়েছে প্রায় ১১ শতাংশ।

পরিচালন মুনাফার দ্বিতীয় শীর্ষে রয়েছে বেসরকারি খাতের ন্যাশনাল ব্যাংক। বছর শেষে ব্যাংকটি পরিচালন মুনাফা করেছে ১ হাজার ১২৮ কোটি টাকা। ২০১৫ সালে ব্যাংকটির পরিচালন মুনাফা ছিল ৬৮১কোটি টাকা।

প্রত্যাশার চেয়েও বেশি মুনাফা করে তৃতীয় স্থানে উঠে এসেছে বেসরকারি খাতের ব্র্যাক ব্যাংক। ২০১৬ সালে ৯২২ কোটি টাকা পরিচালন মুনাফা করেছে ব্যাংকটি। এর আগের বছর ৪৬২ কোটি টাকার পরিচালন মুনাফা করেছিল ব্র্যাক ব্যাংক।

অর্থাৎ ২০১৬ সালে প্রায় ১৯ শতাংশ মুনাফা প্রবৃদ্ধি হয়েছে ব্যাংকটির। এছাড়াও মুনাফায় ভালো প্রবৃদ্ধি হয়েছে  সিটি ব্যাংক, মার্কেন্টাইল ব্যাংক, ট্রাস্ট ব্যাংক, এক্সিম ব্যাংক, সোস্যাল ইসলামী ব্যাংক, আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংকসহ বেশ কয়েকটি বেসরকারি ব্যাংকের।

বাজার বিশ্লেষকরা বলেছেন, দেশের অর্থনৈতিক পরিস্থিতির উন্নতির সাথে সাথে শেয়ার বাজারের উন্নতি ঘটায় অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ার দরই বেড়ে গেছে। কিন্তু তারপরও এখনো অনেক ভালো ভালো কোম্পানির শেয়ার দর অবমূল্যায়িত অবস্থায় রয়েছে। এসব শেয়ারে এখনই বিনিয়োগের উপযুক্ত সময়।

যে সকল কোম্পানিতে দীর্ঘমেয়াদী বিনিয়োগের জন্য উপযুক্ত শেয়ারবার্তা ২৪ ডটকমের অনুসন্ধানে প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা  গেছে। বস্ত্র খাতের আলহাজ টেক্সটাইল, সাফকো স্পিনিং, এপেক্স স্পিনিং, এনভয় টেক্সটাইল, ফ্যামিলি টেক্স      , মুজাফফর হোসেন স্পিনিং, মিথুন নিটিং, সিএম সি কামাল, রিজেন্ট টেক্সটাইল, সিমটেক্স      , স্কয়ার টেক্স, তাল্লু স্পিনিং, জাহিন টেক্স, ভ্রমন ও আবাসন খাতের ইউনাইটেড এয়ার,

সিমেন্ট খাতের হাইডেলবার্গ সিমেন্ট, এমআই সিমেন্ট, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, আরএকে সিরামিকস, আফতাব অটোস, এটলাস বাংলাদেশ, বিডি ল্যাম্পস, বিডি থাই, বিএসআরএম লিমিটেড, বিএসআরএম স্টিল, গোল্ডেন সান, জিপিএইচ ইস্পাত, ন্যাশনাল পলিমার, অলিম্পিক এক্সেসরিজ, কাশেম ড্রাইসেল, রংপুর ফাউন্ড্রি, ডেল্টা ব্র্যাক হাউজিং, ফার্স্ট ফাইন্যান্স,

আইডিএলসি, পিপলস লিজিং, প্রাইম ফাইন্যান্স, বঙ্গজ, ব্রিটিশ আমেরিকান টোবাকো, এমারেল্ড অয়েল, সিভিও পেট্রো কেমিক্যাল, ডেসকো, পাওয়া গ্রিড, খুলনা পাওয়ার, সামিট পাওয়ার, ইউনাইটেড পাওয়ার, ডেল্টা লাইফ ইন্স্যুরেন্স, গ্রীন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স, মেঘনা লাইফ ইন্স্যুরেন্স, ন্যাশনাল লাইফ ইন্স্যুরেন্স, নিটোল ইন্স্যুরেন্স, পাইওনিয়ার ইন্স্যুরেন্স, পপুলার লাইফ ইন্স্যুরেন্স,

প্রগতি লাইফ ইন্স্যুরেন্স, প্রগ্রেসিভ লাইফ ইন্স্যুরেন্স, সন্ধানি লাইফ, সানলাইফ ইন্স্যুরেন্স, অগ্নি সিস্টেমস, ইনফরমেশন সার্ভিস, আরামিট, বেক্সিমকো, বেক্সিমকো ফার্মা, গ্রামীন ফোন, জিকিও বলপেন, ওসমানিয়া গ্লাস, হাক্কানি পাল্প, খুলনা প্রিন্টিং,

এসিআই, এসিআই ফর্মুলেশন, একমি ল্যাব, একটিভ ফাইন ক্যামিকেল, এএফসি এগ্রো, বেক্সিমকো ফার্মা, ফার ক্যামিকেল, গ্লাক্সো স্মিথ ক্লাইন, ম্যারিকো, রেকিট ব্যানকিজার, রেনেটা, স্কয়ার ফার্মা, সাইফ পাওয়ার টেক, সমরিতা হাসপাতাল, সামিট এলায়েন্স পোর্ট, এপেক্স ফুটওয়্যার, লিগ্যাসি ফুটওয়্যার।

 

Comments are closed.