Deshprothikhon-adv

পুঁজিবাজারে বইছে বিনিয়োগমুখী হাওয়া, ৩০ কোম্পানিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে

0
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0Share on LinkedIn0Share on Yummly0Share on StumbleUpon0Share on Reddit0Flattr the authorEmail this to someonePrint this page

শেয়ারবার্তা ২৪ ডটকম, ঢাকা: দেশের পুঁজিবাজারে বইছে বিনিয়োগমুখী হাওয়া। বছরের মাঝের দিক থেকেই পুঁজিবাজার একটু একটু করে ইতিবাচক ধারার ফিরতে শুরু করে। তবে মাঝে মধ্যে সূচকের একটু কারেকশন হলে স্থিতিশীলতার আভাস দিচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে প্রতিনিয়ত পুঁজিবাজারে বাড়ছে বিদেশী বিনিয়োগ এর সাথে পাল্লা দিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ।

এদিকে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর মধ্যে সেপ্টেম্বর মাসে এক শতাংশের বেশি প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে ৩০ কোম্পানিতে। অন্যদিকে, এক শতাংশের বেশি প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগক কমেছে ৩৯ কোম্পানিতে। প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের ৩০৬ কোম্পানির প্রাতিষ্ঠানিক শেয়ার ধারণের হার পরিবর্তন পর্যালোচনায় এ তথ্য মিলেছে।

সূত্রমতে, আলোচ্য সময়ে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বৃদ্ধির শীর্ষে রয়েছে মেঘনা সিমেন্টে। কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৫ দশমিক ৬৪ শতাংশে। আগস্টে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের নামে কোনো শেয়ার ছিল না। বিপরীতে খাদ্য ও আনুষঙ্গিক খাতের আরডি ফুড থেকে প্রাতিষ্ঠানিক শেয়ার কমেছে মোটের সোয়া ১৭ শতাংশ। এ কোম্পানিতে প্রাতিষ্ঠানিক শেয়ার ধারণের হার কমে ১১ দশমিক ৪৬ শতাংশে দাঁড়িয়েছে।

প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, ১৪৩ কোম্পানিতে প্রাতিষ্ঠানিক শেয়ার ধারণের হার বেড়েছে। তবে ফার্মা এইডস, সিএনএটেক্স এবং তুংহাই নিটিং অ্যান্ড ডাইং কোম্পানির সেপ্টেম্বরে শেয়ার ধারণের হারের পরিবর্তন বিষয়ে সর্বশেষ তথ্য মেলেনি। পর্যালোচনায় আরও দেখা গেছে, প্রাতিষ্ঠানিক শেয়ার বৃদ্ধির কিছুটা প্রভাবও দেখা গেছে মেঘনা সিমেন্টের শেয়ারদরে। আগস্টের শেষের তুলনায় সেপ্টেম্বরের শেষে এসে শেয়ারটির দর ৪ শতাংশ বেড়েছে। প্রাতিষ্ঠানিক শেয়ার বৃদ্ধির তথ্য প্রকাশের পর দরবৃদ্ধি বেশি হারে হয়েছে। গত সপ্তাহে শেয়ারটির দর ৯০ টাকা থেকে বেড়ে ১২০ টাকা ছাড়িয়েছে। দরবৃদ্ধির হার ৩৫ শতাংশ।

প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বৃদ্ধির শীর্ষে যেসব কোম্পানি : সেপ্টেম্বরে প্রাতিষ্ঠানিক শেয়ার ধারণের হার বৃদ্ধির ক্ষেত্রে মেঘনা সিমেন্টের পরের অবস্থানে ছিল ইনফরমেশন সার্ভিসেস। এ কোম্পানিতে প্রাতিষ্ঠানিক শেয়ার মোটের ৭ দশমিক ৫২ শতাংশ বেড়ে ২০ দশমিক ৭৬ শতাংশে উন্নীত হয়েছে। এর প্রভাবে গত মাসে শেয়ারটির দর বেড়েছে ২৭ শতাংশ। পরের অবস্থানে থাকা সায়হাম টেক্সটাইলের মোট শেয়ারে প্রাতিষ্ঠানিক শেয়ার ধারণের হার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪০ দশমিক ৯৮ শতাংশ। আগস্টের তুলনায় শেয়ার ধারণের হার বেড়েছে ৭ দশমিক ১৭ শতাংশ। তবে এতে শেয়ারটির দর বেড়েছে মাত্র ৪ শতাংশ।

চতুর্থ অবস্থানে থাকা অ্যাকটিভ ফাইনে প্রাতিষ্ঠানিক শেয়ার প্রায় ৫ শতাংশ বেড়ে ৪০ শতাংশ ছাড়িয়েছে। পঞ্চম অবস্থানে থাকা বিডি কমে ৩ দশমিক ৮৪ শতাংশ বেড়ে মোটের পৌনে ২৬ শতাংশে উন্নীত হয়েছে। এ সত্তে¡ও গত মাসে শেয়ারটির দর প্রায় ৯ শতাংশ কমেছে। ষষ্ঠ অবস্থানে থাকা রিপাবলিক ইন্স্যুরেন্সের মোট শেয়ারে প্রাতিষ্ঠানিক অংশ বেড়ে ১৯ দশমিক ৭০ শতাংশে উন্নীত হয়েছে, যা আগস্টের তুলনায় ৩ দশমিক ৮২ শতাংশ বেশি।

সপ্তম অবস্থানে থাকা এএফসি এগ্রো ইন্ডাস্ট্রিজে ৩ দশমিক ৫৯ শতাংশ বেড়ে ৩৭ দশমিক ১২ শতাংশে, অষ্টম অবস্থানে থাকা জাহীন স্পিনিংয়ে ৩ দশমিক ১৪ শতাংশ বেড়ে ২৭ দশমিক ৬১ শতাংশে এবং বে-লিজিংয়ে ৩ দশমিক ০৫ শতাংশ বেড়ে ৩৭ দশমিক ৮৯ শতাংশে হয়েছে প্রাতিষ্ঠানিক শেয়ার। প্রাতিষ্ঠানিক শেয়ার বৃদ্ধিতে মেঘনা লাইফ ইন্স্যুরেন্স ছিল দশম অবস্থানে। কোম্পানিটির মোট শেয়ারে প্রাতিষ্ঠানিক শেয়ার মোটের ২ দশমিক ৮৮ শতাংশ বেড়ে ৩৭ দশমিক ৩৭ শতাংশে উন্নীত হয়েছে।

পর্যালোচনায় আরও দেখা গেছে, গত মাসে সিমটেক্স, ফরচুন সুজ, খুলনা প্রিন্টিং অ্যান্ড প্যাকেজিং এবং শেফার্ড ইন্ডাস্ট্রিজের মোট শেয়ারে প্রাতিষ্ঠানিক শেয়ার অন্তত ২ শতাংশ বেড়েছে। এছাড়া, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বৃদ্ধি পেয়েছে সর্বোচ্চ দরে থাকা মুন্নু সিরামিকেও।

প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ কমার শীর্ষে যেসব কোম্পানি : প্রাতিষ্ঠানিক শেয়ার কমার পর আরডি ফুডের শেয়ারদরে ব্যাপক নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। গত মাসে শেয়ারটির দর ২২ শতাংশের বেশি পতন হয়েছে। আরডি ফুডের পরের অবস্থানেই রয়েছে ড্রাগন সোয়েটার অ্যান্ড স্পিনিং। কোম্পানিটির মোট শেয়ার থেকে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের শেয়ার ৯ দশমিক ৬৫ শতাংশ কমে ২০ দশমিক ২১ শতাংশ হয়েছে। এতে শেয়ারটির দর ১৬ শতাংশ কমেছে। তৃতীয় অবস্থানে ছিল বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশন। কোম্পানিটির মোট শেয়ার থেকে প্রাতিষ্ঠানিক শেয়ার ৮ শতাংশ কমে ১৩ শতাংশে দাঁড়িয়েছে। তবে শেয়ারটির দর ১ শতাংশ বেড়েছে।

চতুর্থ অবস্থানে থাকা ন্যাশনাল হাউজিং ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট থেকে প্রাতিষ্ঠানিক শেয়ার সোয়া ৭ শতাংশ কমে মোটের ৯ দশমিক ৮০ শতাংশে নেমেছে। কোম্পানিটির শেয়ারদরও প্রায় ১৯ শতাংশ কমেছে। পঞ্চম অবস্থানে থাকা কনফিডেন্স সিমেন্ট থেকে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের ধারণ করা শেয়ারের পরিমাণ মোটের সাড়ে ২৫ শতাংশে নেমেছে। আগস্টে এ কোম্পানি থেকে প্রাতিষ্ঠানিক শেয়ার কমেছে মোটের ৬ দশমিক ৮৯ শতাংশ। তার পরও শেয়ারটির দর প্রায় ২০ শতাংশ বেড়েছে।

ষষ্ঠ অবস্থানে থাকা ইন্টারন্যাশনাল লিজিং থেকে প্রাতিষ্ঠানিক শেয়ার ৫ দশমিক ৪০ শতাংশ কমে ২৪ দশমিক ১৪ শতাংশে দাঁড়িয়েছে। এতে শেয়ারটির দরও সাড়ে ১৫ শতাংশ কমেছে। সপ্তম অবস্থানে থাকা রূপালী লাইফ ইন্স্যুরেন্স থেকে প্রাতিষ্ঠানিক শেয়ার ৫ দশমিক ১০ শতাংশ কমে ১৮ দশমিক ০৫ শতাংশে নেমেছে। শেয়ারটির দর কমেছে ১০ শতাংশ।

অষ্টম অবস্থানে থাকা রিজেন্ট টেক্সটাইলের মোট শেয়ারে প্রাতিষ্ঠানিক শেয়ার ৪ দশমিক ৮৪ শতাংশ কমে ৪ দশমিক ৯৫ শতাংশে নেমেছে। শেয়ারটির দর সেপ্টেম্বরে কমেছে প্রায় ২২ শতাংশ। নবম অবস্থানে থাকা তসরিফা ইন্ডাস্ট্রিজ থেকে প্রাতিষ্ঠানিক শেয়ার ৪ দশমিক ৬২ শতাংশ কমে মোটের ২২ দশমিক ৫৮ শতাংশে নেমেছে। শেয়ারটির দর কমেছে ১৭ শতাংশ। আর দশম অবস্থানে থাকা ইস্টার্ন হাউজিং থেকে ৪ দশমিক ২৭ শতাংশ কমে ৩০ দশমিক ৭১ শতাংশে নেমেছে।

সুত্র: দেশ প্রতিক্ষণ

Comments are closed.