Deshprothikhon-adv

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত অধিকাংশ আর্থিক খাতের সম্পদ বাড়ছে

0
Share on Facebook3Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0Share on LinkedIn0Share on Yummly0Share on StumbleUpon0Share on Reddit0Flattr the authorEmail this to someonePrint this page

মোহাম্মদ তারেকুজ্জামান : বানিজ্যিক ব্যাংকগুলোর পাশাপাশি আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোতেও সুদিন ফিরছে। বছরের ব্যবধানে অধিকাংশ কোম্পানির আর্থিক ভিত্তি মজবুত হয়েছে। এ সময় পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত অর্ধেকের বেশি কোম্পানির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য বেড়েছে (এনএভি) বেড়েছে মুনাফার পরিমাণও।

দেশের পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে জানা গেছে তালিকাভুক্ত ২৩ আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ১২টিরই এনএভি বেড়েছে। আর্থিক প্রতিষ্ঠানের সম্পদ মূল্যকে কোম্পানির ভিত্তি হিসেবে বিবেচনা করা হয়। ফলে আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোতে একাধিক কারসাজি উঠে আসলেও অবস্থার পরিবর্তন হচ্ছে ক্রমান্বয়ে। বিশ্লেষকরা বলছেন একাধিক আর্থিক প্রতিষ্ঠানে বড় ধরনের কারসাজির অভিযোগ ওঠার পর কেন্দ্রিয় ব্যাংকের হস্তক্ষেপ ও কড়া নজরদারিতে অনিয়মের প্রবণতা কমছে।

ফলে সুশাষন নিশ্চিত হওয়ার পাশাপাশি কোম্পানিগুলোর আর্থিক ভিত্তিও মজবুত হচ্ছে। এ সময়ে বাংলাদেশ ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট কোম্পানি লিমিটেড (বিডিফাইন্যান্স), ডেল্টা ব্র্যাক হাউজিং ফাইন্যান্স করপোরেশন লিমিটেড, ফাস ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড, আইডিএলসি ফাইন্যান্স লিমিটেড, ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফিনান্সিয়াল সার্ভিসেস লিমিটেড, ইসলামিক ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড, মাইডাস ফাইন্যান্স লিমিটেড, ন্যাশনাল হাউজিং ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড, ফনিক্স ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড, প্রিমিয়ার লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্স লিমিটেড, ইউনিয়ন ক্যাপিটাল লিমিটেড ও ইউনাইটেড ফাইন্যান্স লিমিটেড কোম্পানির এনএভি আগের অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় বেড়েছে।

বাংলাদেশ ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট কোম্পানি লিমিটেড : কোম্পানিটির ২০১৫ সালে শেয়ার প্রতিপ্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৫.৬০ টাকা। আর ২০১৪ সালে শেয়ারপ্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য হয়েছে ১৪.৪৯ টাকা। এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির এনএভি বৃদ্ধি পেয়েছে ১.১১ টাকা।

ডেল্টা ব্র্যাক হাউজিং ফাইন্যান্স করপোরেশন লিমিটেড : কোম্পানিটির ২০১৬ সালে শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ১৫.৭৬ টাকা। আর ২০১৫ সালে প্রকৃত সম্পদ মূল্য হয়েছে ১৩.৭৬ টাকা। এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির প্রকৃত সম্পদ মূল্য বেড়েছে ২ টাকা।

ফাস ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড : কোম্পানিটির ২০১৫ সালে শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৪.৭০ টাকা। আর ২০১৪ সালে প্রকৃত সম্পদ মূল্য ছিল ১৪.৫৪ টাকা। এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির এনএভি বেড়েছে ০.১৬ টাকা।

আইডিএলসি ফাইন্যান্স লিমিটেড : কোম্পানিটির ২০১৬ সালে শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৩৫.৫৬ টাকা। আর ২০১৫ সালে প্রকৃত সম্পদ মূল্য ছিল ৩০.৯৭ টাকা। এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির এনএভি বেড়েছে ৪.৫৯ টাকা।

ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফিনান্সিয়াল সার্ভিসেস লিমিটেড : কোম্পানিটির ২০১৫ সালে শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১২.৮২ টাকা। আর ২০১৪ সালে প্রকৃত সম্পদ মূল্য ছিল ১২.৬১ টাকা। এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির এনএভি বেড়েছে ০.২১ টাকা।

ইসলামিক ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড : কোম্পানিটির ২০১৫ সালে শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য হয়েছে ১৩.৩৫ টাকা। আর ২০১৪ সালে প্রকৃত সম্পদ মূল্য ছিল ১২.৯৮ টাকা। এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির এনএভি বেড়েছে ০.৩৭ টাকা।

মাইডাস ফাইন্যান্স লিমিটেড : কোম্পানিটির ২০১৫ সালে শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৭.৩৭ টাকা। আর ২০১৪ সালে প্রকৃত সম্পদ মূল্য ছিল ৭.০২ টাকা। এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির এনএভি বেড়েছে ০.৩৫ টাকা।

ন্যাশনাল হাউজিং ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড : কোম্পানিটির ২০১৫ সালে শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৪.৭৯ টাকা। আর ২০১৪ সালে প্রকৃত সম্পদ ছিল ১৪.১২ টাকা। এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির এনএভি বেড়েছে ০.৬৭ টাকা।

ফনিক্স ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড : কোম্পানিটির ২০১৫ সালে শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ২০.৭৬ টাকা। আর ২০১৪ সালে প্রকৃত সম্পদ মূল্য ২০.৫৯ টাকা। এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির এনএভি বেড়েছে ০.১৭ টাকা।

প্রিমিয়ার লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্স লিমিটেড : কোম্পানিটির ২০১৫ সালে শেয়ারপ্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১১.৯৮ টাকা। আর ২০১৪ সালে প্রকৃত সম্পদ মূল্য ছিল ১১.৩৫ টাকা। এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির প্রকৃত সম্পদ মূল্য বেড়েছে ০.৫৯ টাকা।

ইউনিয়ন ক্যাপিটাল লিমিটেড : কোম্পানিটির ২০১৫ সালে শেয়ারপ্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৮.৭৫ টাকা। আর ২০১৪ সালে প্রকৃত সম্পদ মূল্য ছিল ১৪.৯৫ টাকা। এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির এনএভি বেড়েছে ৩.৮ টাকা।

ইউনাইটেড ফাইন্যান্স লিমিটেড: কোম্পানিটির ২০১৫ সালে শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৭.৪৯ টাকা। আর ২০১৪ সালে প্রকৃত সম্পদ মূল্য ছিল ১৭.২৯ টাকা। এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির এনএভি বেড়েছে ০.২ টাকা।

অপর দিকে যেসব কোম্পানির আলোচিত সময়ে এনএভি কমেছে সেগুলো হচ্ছে-বে-লিজিং অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড, বাংলাদেশ ইন্ডাস্ট্রিয়াল ফাইন্যান্স কোম্পানি লিমিটেড, ফারইস্ট ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড, জিএসপি ফাইন্যান্স কোম্পানি লিমিটেড, ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশ লিমিটেড, আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড, ফাস্ট ফাইন্যান্স লিমিটেড, লংকাবাংলা ফাইন্যান্স লিমিটেড, পিপলস লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্স সার্ভিসেস লিমিটেড, প্রাইম ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড ও উত্তরা ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড।

বে-লিজিং অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড : কোম্পানিটির ২০১৫ সালে শেয়ার প্রতিপ্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ২০.৯১ টাকা। আর ২০১৪ সালে প্রকৃত সম্পদ মূল্য ছিল ২১.৭১ টাকা। কোম্পানিটির এক বছরের ব্যবধানে শেয়ারপ্রতি প্রকৃত সম্পদ কমেছে ০.৮ শতাংশ টাকা।

বাংলাদেশ ইন্ডাস্ট্রিয়াল ফাইন্যান্স কোম্পানি লিমিটেড : কোম্পানিটির ২০১৫ সালে শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৯.৯১ টাকা। আর ২০১৪ সালে শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য ছিল ১৬.১৩ টাকা। এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির প্রকৃত সম্পদ মূল্য কমেছে ৬.২২ টাকা।

জিএসপি ফাইন্যান্স কোম্পানি লিমিটেড : কোম্পানিটির ২০১৫ সালে শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৬.৬৮ টাকা। আর ২০১৪ সালে প্রকৃত সম্পদ মূল্য ছিল ২২.৯০ টাকা। এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির এনএভি কমেছে ৬.২২ টাকা।

ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশ লিমিটেড : কোম্পানিটির ২০১৬ সালে শেয়ারপ্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৫৯.৩০ টাকা। আর ২০১৫ সালে প্রকৃত সম্পদ মূল্য ছিল ৬৯.২০ টাকা। এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির এনএভি কমেছে ৯.৯ টাকা।

ফারইস্ট ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড : কোম্পানিটির ২০১৫ সালে শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১২.৯৬ টাকা। আর ২০১৪ সালে প্রকৃত সম্পদ মূল্য ছিল ১৩.০০ টাকা। এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি এনএভি কমেছে ০.০৪ টাকা।

ফাস্ট ফাইন্যান্স লিমিটেড : কোম্পানিটির ২০১৫ সালে শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৩.০৭ টাকা। আর ২০১৪ সালে প্রকৃত সম্পদ মূল্য ছিল ১৩.৬৪ টাকা। এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির এনএভি কমেছে ০.৫৭ টাকা।

আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড : কোম্পানিটির ২০১৫ সালে শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৯.৬০ টাকা। আর ২০১৪ সালে প্রকৃত সম্পদ মূল্য হয়েছে ১৯.৯৭ টাকা। এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির এনএভি কমেছে ০.৩৭ টাকা।

লংকাবাংলা ফাইন্যান্স লিমিটেড : কোম্পানিটির ২০১৬ সালে শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ২৪.১৬ টাকা। আর ২০১৫ সালে প্রকৃত সম্পদ মূল্য ছিল ২৬.০২ টাকা। এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির এনএভি কমেছে ১.৮৬ টাকা।

পিপলস লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্স সার্ভিসেস লিমিটেড : কোম্পানিটির ২০১৫ সালে শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১২.৯৮ টাকা। আর ২০১৪ সালে প্রকৃত সম্পদ মূল্য ছিল ১৭.৫২ টাকা। এক বছরের ব্যবধানে এনএভি কমেছে ৪.৫৪ টাকা।

প্রাইম ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড : কোম্পানিটির ২০১৬ সালে শেয়ারপ্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১০.২১ টাকা। আর ২০১৫ সালে কোম্পানিটির প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৩.৬৯ টাকা। এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির এনএভি কমেছে ৩.৪৮ টাকা।

উত্তরা ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড : কোম্পানিটির ২০১৫ সালে শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য ছিল ৪১.৮৭ টাকা। আর ২০১৪ সালে প্রকৃত সম্পদ মূল্য ছিল ৪৩.২১ টাকা। এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির এনএভি কমেছে ১.৩৪ টাকা। সুত্র: দৈনিক দেশ প্রতিক্ষণ

Comments are closed.