Deshprothikhon-adv

৪ কোম্পানির আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ

0
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0Share on LinkedIn0Share on Yummly0Share on StumbleUpon0Share on Reddit0Flattr the authorEmail this to someonePrint this page

potibodonআরিফুর রহমান, শেয়ারবার্তা ২৪ ডটকম, ঢাকা: ৪ কোম্পানির আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। কোম্পানিগুলো হলো- বিডি ল্যাম্পস, ইবনে সিনা, ন্যাশনাল পলিমার, নর্দার্ন জুট । ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। সুত্রে জানা যায়, জুলাই-ডিসেম্বর, ২০১৬ পর্যন্ত অর্ধবার্ষিকীতে বিডি ল্যাম্পসের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) করেছে ৮৪ পয়সা।

আগের বছর একই সময় কোম্পানিটির ইপিএস ছিল ১ টাকা ১৪ পয়সা। এই হিসাবে কোম্পানিটির আয় কমেছে ২৬ শতাংশ। সর্বশেষ ৩ মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর, ২০১৬) কোম্পানির ইপিএস হয়েছে ৫৪ পয়সা।

গত বছরের একই সময়ে যা ছিল ৯১ পয়সা। দ্বিতীয় প্রান্তিকের (জুলাই-ডিসেম্বর’১৬) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ওষুধ ও রসায়ন খাতের কোম্পানি দি ইবনে সিনা লিমিটেড। দ্বিতীয় প্রান্তিকে ইবনে সিনার শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫.৬২ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে ইপিএস ছিল ৪.৮০ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ০.৮২ টাকা বা ১৭.০৮ শতাংশ।

ৎএছাড়া আলোচিত সময়ে কোম্পানির শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ৩.২২ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৩৮.৪০ টাকা। যা আগের বছর একইসময় ছিল এনওসিএফপিএস ছিল ৬.৪০ টাকা এবং এনএভিপিএস ছিল ৩৩.৬৭ টাকা।

ন্যাশনাল পলিমার: তালিকাভুক্ত দ্বিতীয় প্রান্তিকের (জুলাই-ডিসেম্বর’১৬) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে প্রকৌশল খাতের কোম্পানি ন্যাশনাল পলিমার লিমিটেড। প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে। গতকাল অনুষ্ঠিত এ কোম্পানির পর্ষদ সভায় এ প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। সূত্র মতে, দ্বিতীয় প্রান্তিকে ন্যাশনাল পলিমারের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৮১ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে ইপিএস ছিল ১.৩৭ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ০.৪৪ টাকা বা ২৪.৩০ শতাংশ।

এছাড়া আলোচিত সময়ে কোম্পানির শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ৯.০৮ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৫৯.৬৭ টাকা। যা আগের বছর একইসময় ছিল এনওসিএফপিএস ছিল ৩.৭৮ টাকা এবং এনএভিপিএস ছিল ৫৬.১৭ টাকা। এদিকে, গত তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৬) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.২৫ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে ইপিএস ছিল ০.৭৭ টাকা।

নর্দার্ন জুট: তালিকাভুক্ত কোম্পানি নর্দার্ন জুট ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানি লিমিটেড ৬ মাসের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। জুলাই-ডিসেম্বর, ২০১৬ মেয়াদে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ৪ টাকা ২৩ পয়সা। আগের বছরের একইসময়ে এই আয় ছিল ৬৫ পয়সা। গতকাল কোম্পানির পর্ষদ সভায় এ তথ্য জানানো হয়। কোম্পানি সূত্রে জানা গেছে, আলোচ্য সময়ে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদমূল্য (এনএভি) হয়েছে ৮১ টাকা ২০ পয়সা। সর্বশেষ ৩ মাসে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ১ টাকা ১৮ পয়সা। আগের মেয়াদে এই লোকসান ছিল ৩৮ পয়সা।

Comments are closed.