Deshprothikhon-adv

আরএন স্পিনিংয়ের শেয়ার নিয়ে গুজব ছড়িয়ে কারসাজি!

0
Share on Facebook90Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0Share on LinkedIn0Share on Yummly0Share on StumbleUpon0Share on Reddit0Flattr the authorEmail this to someonePrint this page

rn-lagoশেয়ারবার্তা ২৪ ডটকম, ঢাকা: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বস্ত্র খাতের কোম্পানি আর এন স্পিনিং শেয়ার নিয়ে কারসাজির অভিযোগ তুৃলছেন বিনিয়োগকারীরা। কোন কারন ছাড়াই গত এক মাসে এ কোম্পানির শেয়ার দর বেড়েছে  ৪০ শতাংশের বেশি। ফলে অস্বাভাবিক দর বাড়ার বিষয়টি নজওে পড়েছে বিনিয়োগকারীসহ বাজার সংশ্লিষ্ট।

যে কারনে আর এন স্পিনিং এর কাছে শেয়ার দর বাড়ার কারন ও জানতে চায়। ডিএসই কর্তৃপক্ষের চিঠির জবাবে কোম্পানি জানিয়েছে, এ দরবৃদ্ধির নেপথ্যে কোনো অপ্রকাশিত মূল্যসংবেদনশীল তথ্য নেই। তবে প্রশ্ন হলে তাহলে কি কারনে দর বাড়ছে আর এন স্পিনিং এর প্রশ্ন খুঁজতে বের হয়েছেন দেশ প্রতিক্ষণের অনুসন্ধানী টিম।

rn-tradeবাজার সংশ্লিষ্টদের মতে, আর এন স্পিনিং শেয়ার দর বাড়ার কোন কারন নেই। একটি চক্র বাজারে নানা গুজব ছড়িয়ে শেয়ারের দর বাড়াচ্ছে। এ গুজব চক্রটি বাজারে গুজব ছড়াচ্ছে যে এ শেয়ারের দর সামনে আরো বাড়বে। গত বৃহস্পতিবার ডিএসই মতিঝিল ভবনে একাধিক সিকিউরিটিজ হাউস ঘুরে বিনিয়োগকারীদের বলতে শোনা যায় আর এন স্পিনিং বাড়বে।

তবে কি কারনে বাড়বে তারা বলতে পারছেন না। তারাও গুজবে কান দিয়ে শেয়ার কিনছেন। তবে কোম্পানিটির শেয়ারের দরবৃদ্ধির দৌরাতেœ গতিবিধি নিয়ে সন্দেহ পোশন করছেন বিনিয়োগকারীরা। কেউ বলতে পারছেন না যে এই শেয়ারের দরবৃদ্ধির পেছনে কোনো মুল্য সংবেদনশীল তথ্য রয়েছে কিনা।

এ বিষয় জানতে চাইলে পুঁজিবাজার তদন্ত কমিটির প্রধান খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ বলেন, বর্তমান পুঁজিবাজারে কিছু কোম্পানির শেয়ার নিয়ে জুয়া চলছে। একটি শক্তিশালী চক্রের সাথে কোম্পানির নিজস্ব লোকেরা কারসাজি করছে। এ বিষয় ভালো করে তদন্ত করলে সব কিছু বেরিয়ে আসবে।

ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশের (আইসিবি) ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইফতেখারুজ্জামান বলেন, বিনিয়োগকারীদের বাজার পরিস্থিতিতে বুঝে শুনে বিনিয়োগ করা ভাল। তবে আমাদের বিনিয়োগকারীরা আগের চেয়ে সচেতন হয়েছেন। ফলে তাদের উচিত হবে না অন্য কারও কথায় বা গুজবে কান দিয়ে শেয়ার কেনাবেচা করা। বিনিয়োগ করার আগে তাদেরই ঠিক করতে হবে তিনি যে কোম্পানিতে বিনিয়োগ করছেন, সেটা ঝুঁকিমুক্ত কিনা। সিদ্ধান্ত ভুল হলে এর মাশুল তাকেই দিতে হবে। তিনি বিনিয়োগকারীদের ভালো মৌলভিত্তির কোম্পানির সঙ্গে থাকার আহ্বান জানান।

ডিএসই বর্তমান পরিচালক শাকিল রিজভী বলেন, যারা বেশি দরে শেয়ার ক্রয় করে, আমার মতে তারা বিনিয়োগকারী নন। তারা হচ্ছেন ডে ট্রেডার। এরা বেশি দরে শেয়ার কিনে বেশি দরে বেশি দরে শেয়ার বিক্রির মনোভাব পোষন করে। বর্তমান বাজার পরিস্থিতিতে বিনিয়োগকারীদের ভালো মৌল ভিত্তি শেয়ারে বিনিয়োগ করা উচিত।

বাজার বিশ্লেষনে দেখা গেছে, গত এক মাসে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) আরএন স্পিনিং মিলস লিমিটেডের শেয়ারদর ৪০ শতাংশের বেশি বেড়েছে। ডিএসইতে গত এক মাসে আরএন স্পিনিংয়ের শেয়ারদর বেড়েছে ৪০ দশমিক ৫৯ শতাংশ। ২১ নভেম্বর ডিএসইতে কোম্পানিটির শেয়ারদর ছিল ১৭ টাকার ঘরে। গতকাল তা ২৪ টাকা ৬০ পয়সায় উন্নীত হয়।

r-n-sping-grapচলতি হিসাব বছরের প্রথম (জুলাই-সেপ্টেম্বর) প্রান্তিকে শেয়ারপ্রতি ৪০ পয়সা লোকসান দেখিয়েছে আরএন স্পিনিং মিলস লিমিটেড, আগের বছর একই সময়ে যেখানে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৪ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর প্রতিষ্ঠানটির  শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়ায় ২৩ টাকা ৯৭ পয়সা।
উল্লেখ্য, রাইট শেয়ার কেলেঙ্কারির পর উচ্চ আদালতের নির্দেশে ২০১২ হিসাব বছর থেকে বার্ষিক সাধারণ সভা করতে পারছে না কোম্পানিটি। এ কারণে কোনো লভ্যাংশও পাচ্ছেন না কোম্পানিটির শেয়ারহোল্ডাররা।

জানা গেছে, আদালতের নির্দেশক্রমে আরএন স্পিনিংয়ের রাইট শেয়ার কেলেঙ্কারির বিষয়টি আবারো তদন্তের জন্য সম্প্রতি একটি কমিটি গঠন করেছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। এর মধ্য দিয়ে দীর্ঘদিনের অচলাবস্থা কাটবে বলে আশা করছেন বিনিয়োগকারীদের কেউ কেউ।

সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে বৃহস্পতিবার আরএন স্পিনিং শেয়ারের সর্বশেষ দর ছিল ২৪ টাকা ৮০ পয়সা। গত এক বছরে এর দর ১৬ টাকা ৫০ পয়সা থেকে ২৬ টাকা ৫০ পয়সার মধ্যে ওঠানামা করে।

২০১০ সালে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত আরএন স্পিনিংয়ের অনুমোদিত মূলধন ৫০০ কোটি ও পরিশোধিত মূলধন ২৪৭ কোটি ৮০ লাখ টাকা। রিজার্ভ ৭৬ কোটি ১০ লাখ টাকা। কোম্পানির মোট শেয়ারের ৩৬ দশমিক ৭ শতাংশ এর উদ্যোক্তা-পরিচালকদের কাছে, প্রতিষ্ঠান ১৫ দশমিক ১২ ও বাকি ৪৮ দশমিক ৫৮ শতাংশ শেয়ার রয়েছে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের হাতে। সর্বশেষ নিরীক্ষিত মুনাফা ও বাজারদরের ভিত্তিতে এ শেয়ারের মূল্য-আয় (পিই) অনুপাত ৩ দশমিক ৭৪।

Comments are closed.