Deshprothikhon-adv

যে কারনে ১১ কোম্পানি মুনাফা থেকে লোকসানে

0
Share on Facebook35Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0Share on LinkedIn0Share on Yummly0Share on StumbleUpon0Share on Reddit0Flattr the authorEmail this to someonePrint this page

loss-profitশেয়ারবার্তা ২৪ ডটকম, ঢাকা: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বেশিরভাগ কোম্পানি চলতি অর্থবছরের প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। এর মধ্যে গত বছরের একই সময়ে মুনাফায় থাকলেও চলতি বছরে লোকসান করেছে ১১টি কোম্পানি। প্রকাশিত প্রতিবেদন পর্যালোচনায় এ তথ্য জানা যায়।

কোম্পানিগুলো হলো তাল্লু স্পিনিং, বিডি অটোকারস, বঙ্গজ লি., স্ট্যান্ডার্ড সিরামিক, সিভিও পেট্রোকেমিক্যাল, নর্দার্ন জুট, খুলনা প্রিন্টিং অ্যান্ড প্যাকেজিং, অলটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজ, মেট্রো স্পিনিং, আরএন স্পিনিং ও গোল্ডেন সন।

বস্ত্র খাতে তালিকাভুক্ত তাল্লু স্পিনিংয়ের প্রথম প্রান্তিকে শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে দশমিক ২০ টাকা, যা আগের বছরে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল দশমিক ৪০ টাকা।

এ প্রসঙ্গে কথা হয় কোম্পানিটির উপব্যবস্থাপনা পরিচালক (ডিএমডি) ফিরোজ ইসতেখার মাসুদের সঙ্গে বলেন, ‘উৎপাদন বাড়ানোর উদ্যোগ নেওয়া হলেও মূলত উৎপাদন বাড়ানো যায়নি। প্রোডাকশন লসের কারণে বিদায়ী বছরে লোকসানে পড়তে হয়েছে। ফলে বৃহস্পতিবার পর্ষদ সভায় বিনিয়োগকারীদের নো ডিভিডেন্ড দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।’

১৯৯০ সালে তালিকাভুক্ত এ কোম্পানির ৩০ জুন ২০১৬ সমাপ্ত অর্থবছরে শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে দশমিক ৬১ টাকা এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য হয়েছে ১৪ দশমিক ২২ টাকা, যা এর আগের বছর ইপিএস ছিল দশমিক ১৩ টাকা ও শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য ছিল ১৬ দশমিক ৩২ টাকা। তখন শেয়ারহাল্ডারদের জন্য ১০ শতাংশ বোনাস শেয়ার লভ্যাংশ দেয় কোম্পানিটি।

বস্ত্র খাতের এ কোম্পানিটির অনুমোদিত মূলধন ২০০ কোটি টাকা। আর পরিশোধিত মূলধন ৮৯ কোটি টাকা। তাল্লু স্পিনিংয়ের মোট শেয়ারের ২৯ দশমিক চার শতাংশ উদ্যোক্তা বা পরিচালকদের মধ্যে রয়েছে। প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের হাতে রয়েছে ২০ দশমিক ১৫ শতাংশ শেয়ার। আর বাকি ৫০ দশমিক ৮১ শতাংশ শেয়ার রয়েছে সাধারণ বিনিয়োগকারীর হাতে।

চলতি বছরের প্রথম প্রান্তিকে প্রকৌশল খাতের বিডি অটোকারসের শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে দশমিক তিন টাকা, যা আগের বছরে শেয়ারপ্রতি আয় ছিল দশমিক ২৮ টাকা।

এ সময়ে বঙ্গজের শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে দশমিক ১৬ টাকা, যা আগের বছরে ইপিএস ছিল দশমিক ৭৭ টাকা। জানা যায়, বাজারে বঙ্গজ বিস্কুট ও নুডলসের চাহিদা থাকলেও সে তুলনায় উৎপাদন করতে ব্যর্থ হচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। ফলে তাদের আয়ও কমে যাচ্ছে। যার প্রভাব পড়ছে পুঁজিবাজারে।

প্রাপ্ত তথ্যমতে, গত বছর কোম্পানিটির আয় ছিল ১৩ কোটি ৯৬ লাখ টাকা। এ বছর তা নেমে এসেছে ১১ কোটি ৩৪ লাখ টাকায়। অর্থাৎ এক বছরের ব্যবধানে আয় কমে গেছে তিন কোটি ৩০ লাখ টাকা। অন্যদিকে উল্লেখযোগ্য হারে কমে গেছে এ কোম্পানির উৎপাদনও। ২০১৪-১৫ অর্থবছরে কোম্পানিটি চাহিদার তুলনায় উৎপাদন করে ১৫ লাখ ২১ হাজার কেজি বা ৫১ দশমিক ৬৪ শতাংশ।

পরের অর্থবছরে তা নেমে আসে ১২ লাখ ৬৪ হাজার কেজি বা ৪২ দশমিক ১৪ শতাংশ। অর্থাৎ এ সময়ের মধ্যে উৎপাদন কমেছে প্রায় সাড়ে তিন লাখ কেজি বা ৯ দশমিক ৫ শতাংশ। সূত্র জানিয়েছে, কোম্পানিটির উৎপাদন কমে যাওয়ার মূল কারণ হচ্ছে, বর্তমানে যে মেশিনটি দিয়ে উৎপাদনের কাজ চলছে তা খুবই পুরোনো। ফলে উৎপাদন সক্ষমতা কমে গেছে।

বিষয়টি জানতে যোগাযোগ করা হলে প্রতিষ্ঠানটির সচিব ফিরোজ ইসতেখার বলেন, ‘আমরা প্রতিবছর শেয়ারহোল্ডারদের ভালো লভ্যাংশ দিয়ে আসছি। কিন্তু এবার বাধ্য হয়েই তাদের জন্য কিছু করতে পারিনি। প্রতিষ্ঠানটির উৎপাদন কমে যাওয়ার কথা স্বীকার করে তিনি বলেন, আমাদের মেশিনটি পুরোনো হয়ে গেছে। যে কারণে কমে গেছে উৎপাদন, যার ফলে কমে গেছে আমাদের আয়ও। তবে কোম্পানির অবস্থা ভালো হলে আমরা নিশ্চয়ই আবার ‘এ’ ক্যাটাগরিতে ফিরে যাবো।’

আলোচ্য সময়ে স্ট্যান্ডার্ড সিরামিকের শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে এক দশমিক ৭০ টাকা, যা আগের বছরে শেয়ারপ্রতি আয় ছিল দশমিক ১৩ টাকা। সে হিসাবে আগের বছরের তুলনায় কোম্পানিটি লাভ থেকে লোকসানে রয়েছে। সিভিও পেট্রোকেমিক্যালের শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে দশমিক ২৮ টাকা, যা আগের বছরে শেয়ারপ্রতি আয় ছিল ২ দশমিক ৪৯ টাকা।

নদার্ন জুটের শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ৩ দশমিক ৬ টাকা, যা আগের বছরে শেয়ারপ্রতি আয় ছিল ১ দশমিক ৩ টাকা। খুলনা প্রিন্টিং অ্যান্ড প্যাকেজিংয়ের শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে দশমিক ছয় টাকা, যা আগের বছরে শেয়ারপ্রতি আয় ছিল দশমিক ১৬ টাকা।

অলটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজের শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে দশমিক ৩৮ টাকা, যা আগের বছরে শেয়ারপ্রতি আয় ছিল দশমিক ৪৭ টাকা। প্রথম প্রান্তিকে আরএন স্পিনিংয়ের শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে দশমিক ৪০ টাকা, যা আগের বছরে শেয়ারপ্রতি আয় ছিল দশমিক চার টাকা।

চলতি বছরের প্রথম তিন মাসে বস্ত্র খাতের মেট্রো স্পিনিংয়ের শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে দশমিক ৯ টাকা, যা আগের বছরে শেয়ারপ্রতি আয় ছিল দশমিক ছয় টাকা। এদিকে আলোচ্য সময়ে গোল্ডেন সনের শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে দশমিক ১৩ টাকা, যা আগের বছরে শেয়ারপ্রতি আয় ছিল দশমিক ৪৫ টাকা।

Comments are closed.