Deshprothikhon-adv

সৌদি জামিল ইন্ডাস্ট্রিয়াল ন্যাশনাল টিউবসে বিনিয়োগ করতে চায়

0
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0Share on LinkedIn0Share on Yummly0Share on StumbleUpon0Share on Reddit0Flattr the authorEmail this to someonePrint this page

national tubes ltdশেয়ারবার্তা ২৪ ডটকম, ঢাকা: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত প্রকৌশলী খাতের কোম্পানি ন্যাশনাল টিউবস লিমিটেডে সৌদি আরবভিত্তিক বহুজাতিক প্রতিষ্ঠান জামিল ইন্ডাস্ট্রিয়াল ইনভেস্টমেন্ট কোম্পানি যৌথ উদ্যোগের প্রস্তাব দিয়েছে।  সোমবার বিদেশী প্রতিনিধি দলটি ন্যাশনাল টিউবসের কারখানা পরিদর্শনের পর এ প্রস্তাব দেয় শিল্প মন্ত্রণালয়ে। শিল্প  মন্ত্রনালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, জামিল ইন্ডাস্ট্রিয়ালের বিনিয়োগের বিষয়টি এখনো চূড়ান্ত হয়নি। সৌদি আরবে বাংলাদেশের নিযুক্ত রাষ্ট্রদূতের মাধ্যমে তারা বাংলাদেশে এসেছেন। প্রতিনিধি দলটি মন্ত্রনালয় একটি বৈঠক করেছে। বৈঠকে জয়েন্ট ভেঞ্চারের প্রস্তাব দিয়েছি তারা। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ৪৪টি কোম্পানি পরিচালনাকারী সৌদিভিত্তিক জামিল ইন্ডাস্ট্রিয়াল ইনভেস্টমেন্ট বাংলাদেশের প্রকৌশল খাতে বিনিয়োগে আগ্রহী।

এ লক্ষ্যে পাইপ উৎপাদনের সর্বাধুনিক প্রযুক্তি সন্নিবেশের পাশাপাশি নতুন পণ্য উৎপাদনে ন্যাশনাল টিউবকে সহায়তা করতে চায় বহুজাতিক এ বিনিয়োগ প্রতিষ্ঠানটি। এরই অংশ হিসেবে গতকাল টঙ্গীতে ন্যাশনাল টিউবসের কারখানা পরিদর্শন করেছে জামিল ইন্ডাস্ট্রিয়াল ইনভেস্টমেন্ট।

আজ মঙ্গলবার চট্টগ্রামে আরেকটি সরকারি কোম্পানির কারখানা পরিদর্শন করে তারা বিনিয়োগের সিদ্ধান্ত জানাবেন। শিল্প সচিব মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া সাংবাদিকদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। আজ মঙ্গলবার চট্টগ্রামে আরেকটি সরকারি কোম্পানির কারখানা পরিদর্শন করবে।

শিল্প সচিব জানান, সৌদিভিত্তিক বহুজাতিক প্রতিষ্ঠান জামিল ইন্ডাস্ট্রিয়াল ইনভেস্টমেন্ট কোম্পানিকে ন্যাশনাল টিউবস লিমিটেডের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগের প্রস্তাব দিয়েছে বাংলাদেশ। সোমবার (১ আগস্ট) বিদেশী প্রতিনিধি দলটি ন্যাশনাল টিউবসের কারখানা পরিদর্শনের পর শিল্প মন্ত্রণালয় এ প্রস্তাব দেয়। তবে বিনিয়োগের বিষয়টি এখনো চূড়ান্ত হয়নি।

তিনি জানান, সৌদি আরবে বাংলাদেশের নিযুক্ত রাষ্ট্রদূতের মাধ্যমে তারা বাংলাদেশে এসেছেন। প্রতিনিধি দলটি আমাদের সঙ্গে একটি বৈঠক করেছে। বৈঠকে আমি তাদের জয়েন্ট ভেঞ্চারের প্রস্তাব দিয়েছি। তারা টঙ্গীতে ন্যাশনাল টিউবসের কারখানা পরিদর্শন করেছে। আজ মঙ্গলবার চট্টগ্রামে আরেকটি সরকারি কোম্পানির কারখানা পরিদর্শন করবে।

পরিদর্শন শেষে তারা সৌদি আরব ফিরে নিজেদের মধ্যে সিদ্ধান্ত নিয়ে আমাদের জানাবে। সব ঠিকঠাক থাকলে পরবর্তীতে বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে তাদের চুক্তি হতে পারে। সৌদি কোম্পানিটির বিনিয়োগের বিষয়ে আমরা আগ্রহী। বিষয়টি এখন তাদের তাদের ওপর নির্ভর করছে।

জানা গেছে, দাম্মামভিত্তিক জামিল ইন্ডাস্ট্রিয়াল মূলত স্টিল বিল্ডিং ও স্টিল পাইপ সামগ্রীর ব্যবসা করে। এর বাইরে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে বিদ্যুত্-জ্বালানি, তথ্যপ্রযুক্তি, ইলেকট্রিক সামগ্রী ও আবাসন খাতেও তাদের বড় বিনিয়োগ রয়েছে। বর্তমানে মিসর, চীন, অস্ট্রিয়া, ভারত, আরব আমিরাত, থাইল্যান্ড, সিঙ্গাপুর ও ভিয়েতনামসহ অনেক দেশে তাদের ৪৪টি অঙ্গপ্রতিষ্ঠান রয়েছে। এর বাইরে বিভিন্ন দেশের সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে তাদের উল্লেখযোগ্য বিনিয়োগ রয়েছে।

২০১৫ সালে ৪৩৩ কোটি ৬০ লাখ সৌদি রিয়াল টার্নওভারের বিপরীতে ২৬ কোটি ৩০ লাখ রিয়াল নিট মুনাফা করে সৌদি স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্ত কোম্পানিটি। বাংলাদেশী টাকায় হিসাব করলে গেল বছর কোম্পানিটি ৫০০ কোটি টাকার বেশি নিট মুনাফা করে।

অন্যদিকে, ১৯৮৯ সালে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হয় ন্যাশনাল টিউবস। কোম্পানিটি ৩০ জুন ২০১৫ সমাপ্ত অর্থবছরে শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ২০ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড দিয়েছে। এছাড়া কোম্পানিটি সমাপ্ত বছরে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ২.২৬ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি) ছিল ২৮৭.৮৪ টাকা।

বর্তমানে কোম্পানিটির ১ হাজার কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধন রয়েছে। আর পরিশোধিত মূলধন রয়েছে ২৩ কোটি ৭৮ লাখ টাকা। রিজার্ভে আছে ৫৪৬ কোটি ১২ লাখ টাকা। কোম্পানির মোট শেয়ারের মধ্যে উদ্যোক্তা-পরিচালকদের হাতে ০.৬৯ শতাংশ, সরকারী বিনিয়োগকারীদের হাতে ০.৫১ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের হাতে ২০.৪৫ এবং সাধারণ বিনিয়োগকারীদের হাতে রয়েছে ২৭.৮৬ শতাংশ শেয়ার।

Comments are closed.