Deshprothikhon-adv

গুলশান হামলায় সন্দেহভাজন নারী, র‌্যাবের ভিডিও প্রকাশ

0
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0Share on LinkedIn0Share on Yummly0Share on StumbleUpon0Share on Reddit0Flattr the authorEmail this to someonePrint this page

gulsanশেয়ারবার্তা ২৪ ডটকম, ঢাকা:  গুলশানের হলি আর্টিসান রেস্তোরাঁয় হামলার সাথে জড়িত সন্দেহভাজন চারজন ও একটি টয়োটা এক্স ফিলডার গাড়িকে ‘চিহ্নিত’ করে একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে র‌্যাব। মঙ্গলবার (১৯ জুলাই) দুপুরের দিকে র‌্যাবের ফেসবুক পেজে ভিডিওটি প্রকাশ করা হয়। হলি আর্টিসান রেস্তোরাঁয় প্রবেশপথের পাশের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়েছে।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, সাদা শার্ট পরিহিত একজন, এরপর একটি সিলভার রঙের গাড়ি, এরপর কালো হাফ হাতা  গেঞ্জিপরিহিত একজন, পরে সাদা হাফ হাতা শার্ট পরিহিত আরেকজন, সবশেষে সালোয়ার কামিজ পরা এক নারীকে একাধিকবার ঘোরাফেরা করছে।

এই চিহ্নিতদের পরিচয় জানা থাকলে দ্রুত র‍্যাবের যে কোনো নিকটস্থ ব্যাটালিয়ন অথবা ক্যাম্পে অবহিত করার অনুরোধ করা হয়েছে। অথবা জানাতে ফোন করতে পারেন ০১৭৭৭-৭২০ ০৫০ নম্বরে।

উল্লেখ্য, গত ১ জুলাই রাতে গুলশানের কূটনীতিক পাড়ার অভিজাত এই রেস্টুরেন্টে সন্ত্রাসীরা সশস্ত্র হামলা চালিয়ে ১৭ বিদেশিসহ ২০ জিম্মিকে হত্যা করে। সন্ত্রাসীদের ছোড়া গ্রেনেডে প্রাণ যায় ডিবির এসি রবিউল ইসলাম ও বনানী থানার ওসি সালাউদ্দিন খানের।

পরদিন শনিবার (২ জুলাই) সকালে নিরাপত্তা বাহিনী যৌথ অভিযান চালিয়ে সেখান  থেকে ১৩ জিম্মিকে জীবিত উদ্ধার করে এবং ৬ জঙ্গির মৃতদেহ পাওয়া যায়।

এই জঙ্গিরা সবাই তরুণ বাংলাদেশি। তারা আইএস থেকে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় জিম্মিদের মধ্যে একজনকে সন্দেহভাজন হিসেবে আটক করেছে পুলিশ। হাসনাত করিম নামে ওই ব্যক্তি এখন গোয়েন্দা হেফাজতে আছেন। ঘটনার দিন তিনি ছেলের জন্মদিন উদযাপন করতে পরিবার নিয়ে হলি আর্টিসানে গিয়েছিলেন বলে জানিয়েছে তার পরিবার।

তবে পরে জানা যায়, এই হাসনাত করিম নিষিদ্ধ সংগঠন হিযবুত তাহরীরের সঙ্গে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে ২০১২ সালে নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কৃত হন। গুলশান হামলায় জড়িত তরুণ নিবরাস ইসলাম ওই বিশ্ববিদ্যালয়েরই সাবেক ছাত্র।

 

Comments are closed.