Deshprothikhon-adv

জঙ্গিদের পরবর্তী টার্গেট যমুনা ফিউচার পার্ক?

0
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0Share on LinkedIn0Share on Yummly0Share on StumbleUpon0Share on Reddit0Flattr the authorEmail this to someonePrint this page

jongi facebookশেয়ারবার্তা ২৪ ডটকম, ঢাকা: গুলশানের হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁর পর এবার রাজধানীর কুড়িলে অবস্থিত বিপণী ভবন যমুনা ফিউচার পার্কে হামলার হুমকি দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে একটি ট্ইুট প্রকাশ করা হয়েছে। টুইটটি প্রকাশ করেছেন কামিল আহমেদ নামে এক ব্যবহারকারী। প্রকাশিত টুইটে বলা হয় আক্রমণের পরবর্তী লক্ষ্য যমুনা ফিউচার পার্ক।

পরে মন্তব্যের ঘরে ‘কেন বাংলাদেশকে লক্ষ্যবস্তু করা হচ্ছে’ এক ব্যবহারকারীর প্রশ্নের জবাবে জানানো হয়, অমুসলিমদের হাত থেকে ইসলামকে রক্ষার স্বার্থেই এসব পরিকল্পনা এবং তারা শুধুমাত্র তাদের কর্তব্যটুকুই করছে।

j-f-2সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একই ব্যবহারকারীর অভিন্ন বার্তা সম্বলিত টুইটের দু’টি স্ক্রিনশট পাওয়া যায়। খুঁজে পাওয়া স্ক্রিনশট দু’টিতে সময়ের ভিন্নতা রয়েছে। একটি স্ক্রিনশটে রবিবার সকাল ১১টা ৪৯ মিনিট ও অপরটিতে সোমবার রাত ১২টা ৪৯ মিনিটে একই বার্তা দিয়ে এই অ্যাকাউন্ট থেকে টুইট করা হয়েছে।

এরপর থেকেই টুইটারে কামিল আহমেদকে উদ্দেশ করে জবাব দিতে থাকেন দেশে বিদেশি অবস্থানকারী টুইটার ব্যবহারকারীরা। যমুনা-ফিউচার-পার্কে-হামলার-হুমকি-আসার-পর-টুইটারে-প্রতিক্রিয়া হুমকিদাতা কামিল আহমেদের অ্যাকাউন্টটি পরে নিষ্ক্রিয় পাওয়া গেছে।

উল্লেখ্য, শুক্রবার রাতে গুলশান-২ এর ৭৯ নম্বর সড়কের হলি আর্টিজান বেকারিতে হামলা চালায় জঙ্গিরা। এতে ২ পুলিশ সদস্য,১৭ বিদেশি নাগরিক ও তিন বাংলাদেশি নিহত হন। পরে সেনাবাহিনীর নেতৃত্বে পরিচালিত অভিযানে ছয় জঙ্গি নিহত হয় বলে শনিবার সেনাসদরে এক সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়। অভিযানে জীবিত উদ্ধার করা হয় তিন বিদেশি নাগরিকসহ ১৩ জিম্মিকে।

আটক করা হয় এক সন্দেহভাজন জঙ্গিকে। নিহতদের মধ্যে নয়জন ইতালির,সাতজন জাপানি ও একজন ভারতের নাগরিক। বাকি তিনজন বাংলাদেশি,যাদের মধ্যে একজনের যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকত্ব ছিল। নিহত সাত জাপানির মধ্যে ছয়জনই মেট্রোরেল প্রকল্পের কাজে নিয়োজিত ছিলেন। সুত্র: বাংলা ট্রিবিউন

Comments are closed.