Deshprothikhon-adv

নতুন বুক বিল্ডিং সফটওয়্যারে সুফল পাবে স্টক এক্সচেঞ্জ

0

sapon kumer balaশেয়ারবার্তা ২৪ ডটকম, ঢাকা: স্টক এক্সচেঞ্জের উদ্যোগে বুক বিল্ডিং সফটওয়্যার উদ্বোধন কালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ড. অধ্যাপক স্বপন কুমার বালা বলেন, এতোদিন দুবাইভিত্তিক একটি কোম্পানি বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে আসা কোম্পানিগুলোর কাজ সম্পন্ন করতে সেবা দিত। তবে দীর্ঘদিন ধরে বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে কোম্পানি শেয়ারবাজারে আসা বন্ধ থাকলেও প্রতিবছর বিপুল পরমিাণ ফি দিতে হতো।

স্টক এক্সচেঞ্জের মুনাফা খরায় এই ব্যয় ভাবিয়ে তোলে। ব্যয় কমানো অন্যতম লক্ষ্য রেখে নিজস্ব উদ্যোগে নতুন বুক বিল্ডিং সফটওয়্যার উদ্বোধন করা হয়েছে। এখন এর সুফল পাবে স্টক এক্সচেঞ্জ। ২০১৫ পাবলিক ইস্যু রুলস তৈরীতে কিছু জটিলতার দেখা দেয় বলে জানান স্বপন কুমার বালা। তবে নতুন বুক বিল্ডিং সফটওয়্যার উদ্বোধনের মাধ্যমে তা অনেকাংশে কেটে যাবে।

তিনি আরো বলেন, পাবলিক ইস্যু রুলস-২০১৫তে অনেক সংশোধনী আসছে। তবে বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে শেয়ারের সঠিক মূল্য (ফেয়ার প্রাইসিং) নির্ধারন নিয়ে হতাশ ছিলাম। এ বিষয়ে ওই সময় কমিশনের সাথে আলোচনাও হয়েছে। কমিশন বলেছে, এই পদ্ধতিতে দুই একটি শেয়ারবাজারে আসার পরে সমস্যা দেখা দিলে তা সমাধান করা হবে।

দীর্ঘদিন দুবাই ভিত্তিক কোম্পানির মাধ্যমে বুক বিল্ডিং এর কাজ সম্পন্ন করা হলেও বৃহস্পতিবার (২৬ মে) দেশের ঊভয় স্টক এক্সচেঞ্জের উদ্যোগে নিজস্ব বুক বিল্ডিং সফটওয়্যার উদ্বোধন করা হয়েছে। এদিন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) কার্যালয়ে নতুন বুক বিল্ডিং সফটওয়্যার উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) কমিশনার ড. অধ্যাপক স্বপন কুমার বালা।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) চেয়ারম্যান ড. মোহাম্মদ আব্দুল মজিদ বলেন, নতুন বুক বিল্ডিং সফটওয়্যার উদ্বোধনের মাধ্যমে আত্মবিশ্বাসের উদ্বোধন হল। আগে বিদেশী কোম্পানির মাধ্যমে বুক বিল্ডিং এর কাজ করা হত। কিন্তু এখন থেকে নিজেদের সফটওয়্যারে তা সমাধান করা হবে।

এবং কোন সমস্যা দেখা দিলেও তা নিজেরাই সমাধান করা হবে। এই নতুন বুক বিল্ডিং সফটওয়্যার সফলভাবে কাজ করবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ডিএসই’র পরিচালক ওয়ালিউল ইসলাম। ঊভয় স্টক এক্সচেঞ্জের যৌথ উদ্যোগে নতুন বুক বিল্ডিং সফটওয়্যার উদ্বোধন করা হয়েছে। যার অংশীদার দুই স্টক এক্সচেঞ্জ।

উল্লেখ্য ২০০৯ সালের ১৮ অক্টোবর দুবাই ভিত্তিক ইনফোটেক কোম্পানীর কাছ থেকে ইন্টিগ্রেটেড সফটওয়্যার কেনার মাধ্যমে এর বুক বিল্ডিং সফটওয়্যারের পথচলা শুরু হয়। পরবর্তীতে ২০১৩ সালের ১ অক্টোবর ব্যয় উৎকর্ষতা, সহজতর রক্ষণাবেক্ষণ, সময়োপযোগী পরিবর্তন ও পরিবর্ধন সাধনের লক্ষ্যে নতুন আঙ্গিকে নিজস্ব বুক বিল্ডিং সফটওয়্যার চালু করে।

নতুন পাবলিক ইস্যু রুলস-২০১৫ অনুযায়ি চলতি বছরের ২৩ মে সফটওয়্যার পুণঃনির্মান ও ইউএটি (ইউজার অ্যাকসেপটেন্স টেস্ট) সম্পন্ন করা হয়। ভবিষ্যতে সিস্টেমটির সাথে আইপিও অ্যাপ্লিকেশন প্রসেস সংযোজন করা হবে যা আইপিও ম্যানেজমেন্টকে আরো সহজতর করবে।

Comments are closed.