Deshprothikhon-adv

মমতার শপথ অনুষ্ঠানের আমন্ত্রণে হাসিনা যাচ্ছেন না

0
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0Share on LinkedIn0Share on Yummly0Share on StumbleUpon0Share on Reddit0Flattr the authorEmail this to someonePrint this page

momtaশেয়ারবার্তা ২৪ ডটকম, ঢাকা : দ্বিতীয় দফায় পশ্চিমবঙ্গের মসনদে বসতে আগামী শুক্রবার মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিচ্ছেন মমতা বন্দোপধ্যায়। আর সে অনুষ্ঠানে উপস্থিত হওয়ার জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে। কিন্তু সেখানে যেতে পারবেন না বলে জানিয়ে দিয়েছেন শেখ হাসিনা।  প্রধানমন্ত্রীর পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচি থাকায় তিনি সে অনুষ্ঠানে যাচ্ছেন না। তবে তিনি যেতে না পারলেও মন্ত্রিসভার গুরুত্বপূর্ণ কোনো সদস্যকে ওই অনুষ্ঠানে পাঠানো হতে পারে।

প্রসঙ্গত, দুইশতাধিক আসন দখল করে ক্ষমতায় ফিরল তৃণমূল। গতবারের থেকেও বেড়েছে আসন ও ভোটের হার। বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ফের বাংলার মসনদ দখল তৃণমূলের। গত ১৯ মে ঘোষিত ফলাফলে বিধান সভার ২৯৪ আসনের মধ্যে তৃণমূলের ‘জোড়াফুল’ পেয়েছে ২১১ আসন। কংগ্রেস পেয়েছে ৪৪ আসন। বামফ্রন্টের আসন ৩২টি। এর আগে বিজেপির কোনো আসন না থাকলেও এ নির্বাচনে জিতেছে ৩টিতে।

সে দিন দুপুরেই নিজের বাসভবনে ধন্যবাদ জ্ঞাপনের জন্য মমতা এক সংবাদ সম্মেলন করেন। সেখানেই তিনি বলেছিলেন মুখ্যমন্ত্রিত্বের এই মেয়াদে প্রতিবেশী সব রাষ্ট্রের সঙ্গে সম্পর্ক আরো বন্ধুত্বপূর্ণ করে তুলতে চান।

তার সেই মন্তব্যকে গুরুত্বপূর্ণ বলেই মনে করে বাংলাদেশ। কারণ এর আগে বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের তিস্তা পানিবণ্টন চুক্তির ক্ষেত্রে মমতাই ছিলেন প্রধান বাধা। তাই দ্বিতীয় মেয়াদে জয়ের পর মমতার ওই মন্তব্যকে তিস্তা চুক্তির জন্য ইতিবাচক ইঙ্গিত বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

এদিকে ২০১১ সালে বামফ্রন্টের ৩৪ বছরের শাসনের অবসান ঘটানোর খবর পেয়েই ঢাকা থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা টেলিফোনে অভিনন্দন জানিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। তার উত্তরে তৃণমূল নেত্রী বলেছিলেন, ‘আমার সোনার বাংলা, আমি তোমায় ভালোবাসি।’

Leave A Reply