Deshprothikhon-adv

ঘূর্ণিঝড় রোয়ানু আতঙ্কে এখনও উপকূলের মানুষ (ভিডিসহ)

0
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0Share on LinkedIn0Share on Yummly0Share on StumbleUpon0Share on Reddit0Flattr the authorEmail this to someonePrint this page

upkulশেয়ারবার্তা ২৪ ডটকম, ঢাকা: উপকূলীয় অঞ্চলের শতাধিক গ্রাম ভাসিয়ে দুর্বল হয়ে এখন বাংলাদেশের স্থলভাগ অতিক্রম করে যাচ্ছে ঘূর্ণিঝড় রোয়ানু। এছাড়া উপকূলে ৭ নম্বর বিপদ সংকেত কমিয়ে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্কতা সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। রোয়ানুর আঘাতে এ পর্যন্ত ২৫ জনের প্রাণহানির খবর পাওয়া গেছে। অনেকে এখনো নিখোঁজ রয়েছেন।

রোববার সন্ধ্যায় আবহাওয়া দপ্তরের সর্বশেষ বিশেষ বুলেটিনে জানানো হয়েছে, ডপলার রাডার ইকো ও আবহাওয়া উপাত্ত বিশ্লেষণ থেকে দেখা যায় যে, উপকূল অতিক্রমরত ঘূর্ণিঝড় ‘রোয়ানু’ আরও উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর বিকেল ৫টায় চট্টগ্রামের কাছ দিয়ে বরিশাল-চট্টগ্রাম উপকূল অতিক্রম করেছে এবং বৃষ্টি ঝরিয়ে দুর্বল হয়ে নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। নিম্নচাপটি বর্তমানে বাংলাদেশের ফেনী, সীতাকুন্ড ও খাগড়াছড়ি এবং ভারতের ত্রিপুরা ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে।

বুলেটিনে আরো বলা হয়েছে, এটি স্থলভাগের উপর দিয়ে আরও উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হয়ে বৃষ্টি ঝরিয়ে ক্রমান্বয়ে দুর্বল হয়ে যাবে। এর প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগরে বায়ুচাপ তারতম্যের আধিক্য বিরাজ করছে। উত্তর বঙ্গোপসাগর, বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা এবং সমুদ্র বন্দরসমূহের উপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।

চট্টগ্রাম, মংলা ও পায়রা সমুদধ বন্দরকে ৭ নম্বর বিপদ সংকেত নামিয়ে তার পরিবর্তে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। কক্সবাজার সমুদ্র বন্দরকে ৬ নম্বর বিপদ সংকেত নামিয়ে তার পরিবর্তে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত সব মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে আগামীকাল রোববার দুপুর পর্যন্ত নিরাপদ আশ্রয়ে থাকতে বলা হয়েছে এবং পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে।

Leave A Reply