Deshprothikhon-adv

উপকূল অতিক্রম করছে ‘রোয়ানু’ (ভিডিও)

0
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0Share on LinkedIn0Share on Yummly0Share on StumbleUpon0Share on Reddit0Flattr the authorEmail this to someonePrint this page

upkul

বরিশাল, চট্টগ্রাম ব্যুরো: ঘূর্ণিঝড় রোয়ানু বাংলাদেশের উপকূলে আঘাত হেনেছে। বরগুনা, পটুয়াখালী ও চট্টগ্রাম অতিক্রম করছে ঘূর্ণিঝড়টি। শনিবার পৌনে ১টা থেকে ঘূর্ণিঝড় রোয়ানু ওই এলাকা দিয়ে বয়ে যায়। জানা যায়, রোয়ানুর প্রভাবে কয়েকটি উপকূলে জলোচ্ছ্বাসের সৃষ্টি হয়েছে। ২০-২৫ ফুট উঁচু হয়ে পানি এসে আঘাত করছে।

বাতাসের একটানা গতিবেগ ৮০ কিলোমিটার। এসব এলাকার দোকানপাট পানিতে তলিয়ে গিয়ে ভেসে গেছে। হাতিয়ায় নিঝুম দ্বীপের বেড়িবাধঁ ভেঙে গেছে। চট্টগ্রামের বাঁশখালী, আনোয়ারা, সন্দ্বীপ উপেজেলার নিম্নাঞ্চল জোয়ারের পানিতে প্লাবিত হয়েছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর সর্বশেষ কোনো তথ্য না জানালেও চট্টগ্রামের স্থানীয়রা অনুমান করছেন রোয়ানু উপকূল অতিক্রম করছে। পরে ফোনে যোগাযোগ করা হলে জানানো হয়, পৌনে ১২টার দিকে ঘূর্ণিঝড়টি উপকূলে আঘাত হেনেছে। উপকূলে ১৫ থেকে ২০ ফুট উঁচু ঢেউ উঠছে। ৮০ কিমি গতিবেগে বইছে ঝড়ো হাওয়া। শনিবার (২১ মে) ৯টার দিকে আবহাওয়া অধিদপ্তরের বিশেষ বুলেটিন ১৮-তে জানানো হয় দুপুরের দিকে ‘রোয়ানু’ আঘাত হানতে পারে। তবে দুপুরের আগেই এটি আঘাত হেনেছে চট্টগ্রাম উপকূলে।

ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে উপকূলের বিভিন্ন এলাকায় প্রচণ্ড বাতাস বইছে, সঙ্গে হচ্ছে প্রবল বৃষ্টিপাত। এরই ফলে সীতাকুণ্ডে জঙ্গল ছলিমপুরের কালাপানিয়া পাহাড় এলাকায় ঘরের ওপরে গাছ ভেঙে পড়ে মা ও ছেলের মৃত্যু হয়েছে। নিহতরা হলেন, কালাপানিয়া পাহাড় এলাকার বাসিন্দা রফিকের স্ত্রী কাজল বেগম (৫০) ও তার ছেলে বেলাল প্রকাশ আবু (১০)।

ঘূর্ণিঝড় ‘রোয়ানু’র প্রভাবে প্রবল ঝড়ে ঘরচাপায় ভোলাতেও দুজনের মত্যু হয়েছে। তজুমদ্দিন উপজেলার শশিগঞ্জ গ্রামে মৃত এ দুজনের একজন গৃহবধূ এবং অন্যজন শিক্ষার্থী। নিহতরা হলেন- স্কুলছাত্র আকরাম, সে চাঁদপুর ইউনিয়নের শশিগঞ্জ গ্রামের মো. মফিজের ছেলে। একই গ্রামের রেখা বেগম, তিনি নয়নের স্ত্রী।

ঘূর্ণিঝড়ে জেলার দশমিনা উপজেলায় শনিবার ঘর চাপায় এক বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে। ওই নারী সদর ইউনিয়ন লক্ষ্মীপুর গ্রামের বাসিন্দা নয়া বিবি। এদিকে ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার ঢালচর এবং চর কুকড়িমুকড়ি ইউনিয়নে জোয়ারের পানি ঢুকে দুই শতাধিক কাঁচা ঘরবাড়ি পড়ে গেছে।

ঢালচর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবদুস সালাম হাওলাদার এই প্রতিবেদককে জানান, এলাকার একশ ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। শতাধিক গবাদি পশু জোয়ারের পানিতে ভেসে গেছে। এ দুই চরে দু’টি ঘূর্ণিঝড় আশ্রয় কেন্দ্র থাকলেও সেখানে পুলিশ ক্যাম্প স্থাপন করা হয়েছে। এদিকে ঘুর্ণিঝড় ‘রোয়ানু’র প্রভাবে শুক্রবার রাত থেকে জেলায় ভারি বর্ষণ ও ঝড়ো হাওয়া বয়ে যাচ্ছে।  ঝড়ো বাতাস ও বৃষ্টিতে দেশের বিভিন্ন স্থানে অন্তত শতাধিক কাঁচা-পাকা বাড়ি ঘর বিধ্বস্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

Leave A Reply