Deshprothikhon-adv

ওইমেক্স ইলেকট্রোড ও বারাকা পতেঙ্গার আইপিও বাতিল

0

ipo lagoশেয়ারবার্তা ২৪ ডটকম, ঢাকা: প্রাথমিক গণপ্রস্তাব (আইপিও) প্রক্রিয়ায় পুঁজিবাজার থেকে মূলধন উত্তোলনের জন্য দুই কোম্পানির আবেদন বাতিল করেছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। কোম্পানি দুটি হলো বারাকা পতেঙ্গা পাওয়ার এবং ওইমেক্স ইলেকট্রোড লিমিটেড। উভয় কোম্পানি ১৫ কোটি টাকা করে মোট ৩০ কোটি টাকা পুঁজি সংগ্রহের অনুমোদন চেয়েছিল। কমিশন কর্মকর্তারা কোম্পানি দুটির আইপিও আবেদন বাতিলের তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

কমিশন সূত্র জানিয়েছে, বারাকা পতেঙ্গা পাওয়ার কোম্পানিকে আইপিও আবেদন বাতিলের কথা জানিয়ে গতকাল চিঠি দিয়েছে বিএসইসি। এর আগে গত ১৭ এপ্রিল ওইমেক্স ইলেকট্রোডকে চিঠি দিয়েও এ তথ্য জানানো হয়। নতুন আইপিও বিধিমালার আলোকে এ আবেদন বাতিল হয়েছে। জানা গেছে, বারাকা পতেঙ্গা পাওয়ার কোম্পানি বারাকা অ্যাপারেলস নামের নতুন সহযোগী কোম্পানিতে বিনিয়োগের উদ্দেশ্যে আইপিওর অনুমোদন চেয়েছিল।

বিএসইসির এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা জানান, বারাকা অ্যাপারেলস একেবারে নতুন একটি কোম্পানি, যার বর্তমান পরিশোধিত মূলধন মাত্র ১০ লাখ টাকা। এছাড়া কোম্পানিটি গত ১ অক্টোবর কার্যক্রম শুরু করেছে বলে জানিয়েছে বারাকা পতেঙ্গা পাওয়ার। কমিশনের কাছে নতুন এ কোম্পানিতে বিনিয়োগের জন্য আইপিওর পরিকল্পনা গ্রহণযোগ্য মনে হয়নি। এছাড়া বারাকা পতেঙ্গা পাওয়ার ও বারাকা অ্যাপারেলস কোম্পানির ব্যবস্থাপনা প্রায় অভিন্ন। এসব কারণে আইপিও আবেদনটি বাতিল হয়েছে।

বারাকা পতেঙ্গা পাওয়ারের পরিশোধিত মূলধন ৯৪ কোটি ৫০ লাখ টাকা। এর ৫১ শতাংশের মালিকানায় রয়েছে বিদ্যুত্ খাতের তালিকাভুক্ত কোম্পানি বারাকা পাওয়ার লিমিটেড। প্রাইভেট প্লেসমেন্টে কোম্পানিটি গত দুই বছরে ৩৬ কোটি ৫২ লাখ টাকার শেয়ার বিক্রি করেছে।

এর আগে বিদ্যমান আইন অনুযায়ী গত বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন জমা দিতে না পারায় ওইমেক্স ইলেকট্রোড লিমিটেডের আইপিও আবেদন বাতিল করে নিয়ন্ত্রক সংস্থা। কোম্পানিটি উত্তোলিত অর্থে ব্যবসা সম্প্রসারণের জন্য যন্ত্রপাতি ও কাঁচামাল আমদানির পরিকল্পনা জানিয়েছিল। দুটি কোম্পানিই অভিহিত মূল্যে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হতে চেয়েছিল।

আইপিও আবেদন বাতিলের তথ্য নিশ্চিত করেছে ওইমেক্স ইলেকট্রোড কোম্পানির ইস্যু ম্যানেজার এমটিবি ক্যাপিটাল। মার্চেন্ট ব্যাংকটির ব্যবস্থাপক, পাবলিক ইস্যু মো. কামরুজ্জামান বলেন, আইপিও আবেদনে ওইমেক্সের পক্ষ থেকে ২০১৫ সালের ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত অর্ধবার্ষিকের হিসাব প্রতিবেদন জমা দেয়া হয়। এ কারণে কমিশন আবেদনটি বিবেচনা করেনি। তবে হিসাব বছর শেষে নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদনসহ আবারো আইপিও আবেদন করবে কোম্পানি।

আইপিও প্রসপেক্টাস অনুযায়ী, ওইমেক্স ইলেকট্রোডের বর্তমান পরিশোধিত মূলধন ২৯ কোটি ২৮ লাখ টাকা। ২০০৫ সালে গঠিত হয় কোম্পানিটি। ২০১৩ সাল পর্যন্ত তাদের পরিশোধিত মূলধন ছিল মাত্র ১০ লাখ টাকা। এদিকে আইপিও আবেদন বাতিলের তথ্য এখনো জানে না বারাকা পতেঙ্গা পাওয়ার। কোম্পানিটির ম্যানেজার ইন্টারনাল অডিট অ্যান্ড করপোরেট অ্যাফেয়ার্স মনোজ দাশ গুপ্ত সংবাদকর্মীদের জানান, আইপিও বাতিলের কোনো তথ্য বা চিঠি এখনো পায়নি কোম্পানি।

 

Leave A Reply