Deshprothikhon-adv

সারাদেশে বজ্রপাতের ঘটনায় নিহত ১১

0
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0Share on LinkedIn0Share on Yummly0Share on StumbleUpon0Share on Reddit0Flattr the authorEmail this to someonePrint this page

sharebarta lagoশেয়ারবার্তা ২৪ ডটকম, ঢাকা: দেশের বিভিন্ন এলাকায় আজ শনিবার বজ্রপাতের ঘটনায় ১১ নিহত হয়েছেন। তারা হলেন, ওসমান গনি (২২), সানি শেখ (১৪), লালু মিয়া (৪০), সাইফুল ইসলাম (৩৯), মুকুল (৩২), মোখলেছুর রহমান (৪০), জাহাঙ্গীর হোসেন (৩৫), সোহেল (১৬), আলম মিয়া (৪০), আব্দুল হালিম (৩৫) ও রবিন পাহান (৪০)।

আমাদের শরীয়তপুর প্রতিনিধি জানান, শনিবার দুপুরে জাজিরার কাজীরহাট গ্রাতে বজ্রপাতে ওসমান গনি (২২) নামে এক কৃষক নিহত হয়েছেন। নিহত ওসমান গনি জামালপুর জেলার মেলান্দ থানার মধ্যের চর গ্রামের রবিউল ইসলামের ছেলে।

নিহত ওসমান গনি ধানকাটার জন্য জামালপুর জেলা থেকে জাজিরা উপজেলা কাজীরহাট গ্রামে স্বপরিবারে বসবাস করছেন। শনিবার সকালে ধান কাটার উদ্দেশ্যে বৃষ্টির মধ্যে বের হলে দুপুরে বজ্রপাতে মাঠের মধ্যে ধানকাটা অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

নীলফামারী প্রতিনিধি জানান, নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলায় বজ্রপাতের ঘটনায় মোখলেছার রহমান (৫০) নামে এক কৃষক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও তিনজন। আহতদের সৈয়দপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আজ শনিবার দুপুরে পশ্চিম বেলপুকুর চক পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, মোখলেছার রহমান ও তার পরিবারের লোকজন বাড়ির পাশের একটি সড়কে বোরো ধান মাড়াইয়ের কাজ করছিল। এসময় হঠাৎ বজ্রপাত হলে ঘটনাস্থলে মোখলেছুর রহমান নিহত হন। এসময় এক নারীসহ তিনজন আহত হন। আহতদের মধ্যে ইলিয়াছ হোসেন (৪০) ও ইদ্রিস আলী (৩৫)কে  সৈয়দপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে বজ্রপাতে তিন জনের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার বিকালে উপজেলার রুপবাটি ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে বলে শাহজাদপুর থানার ওসি মনির হোসেন জানান। নিহতরা হলেন, শ্যালাকাতি গ্রামের হাজী নুরু বক্সের ছেলে জাহাঙ্গীর হোসেন (৩৫), ঢায়া গ্রামের আব্দুস সামাদের ছেলে মো. সোহেল (১৬) ও আবদুল হালিম (৩৫)। আজ বিকেল ৩টার দিকে ধানক্ষেতে কাজ করছিলেন ওই দুইজন। এ সময় বজ্রপাত হলে তাদের মৃত্যু হয়।

এছাড়া, জয়পুরহাট সদর উপজেলায় বজ্রপাতে রবিন পাহান (৪০) নামে এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আহত দুই শ্রমিক জেলা আধুনিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। রবিন পাহান পাথুরিয়া গ্রামের মৃত যোগেন পাহানের ছেলে।

নিহতের পরিবার জানায়, শনিবার সকালে উপজেলার তেঘরবিশা গ্রামের পাশে একটি ইট ভাটায় কাজ করছিলেন তারা। এ সময় বজ্রপাত হলে ঘটনাস্থলেই রবিন মারা যান ও দুইজন গুরুতর আহত হন। আহতদের উদ্ধার করে ওই হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। তারা হলেন, কুজিশহর গ্রামের সাইফুল ইসলাম (৩০) ও নাকুরিয়া গ্রামের মুকুল হোসেন (৩২)।

এছাড়া, শ্রীবরদী উপজেলায় শনিবার বজ্রপাতে ২ জন নিহত হয়েছেন। আজ শনিবার সকালে উপজেলার দক্ষিণ ষাইট কাঁকড়া গ্রামে আলম মিয়া (৪০) গাছের নিচে দাঁড়ানো অবস্থায় এবং বন্ধধাতুয়া গ্রামে লালু মিয়া (৪০) ধান কাটার সময় বজ্রপাতে গুরুত্বর আহত হন। পরে তাদের শ্রীবরদী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

আর বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে সানি শেখ (১৪) নামে ৮ম শ্রেণির এক ছাত্র বজ্রপাতে নিহত হয়েছেন। আজ শনিবার বিকেল ৬ টার দিকে ঝড়ের সময় জিউধরা ইউনিয়নের কুরুপের ধাইড় গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সানি পার্শ্ববর্তী রামপাল উপজেলার ভোজপাতিয়া ইউনিয়নের ঘের ব্যবসায়ী আলম শেখের ছেলে বলে জানা গেছে।

জিউধরা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মো. জাহাঙ্গীর আলম বাদশা জানান, বিকেলে ঝড়ের সময় একটি মৎস্য ঘেরের ঘেরে বজ্রপাত হলে সানি মারা যায়। নিহত সানি তার দাদু শওকত ভান্ডারীর সাথে ঘেরে যাচ্ছিলো। সানি রামপালের কাটাখালি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির ছাত্র ছিল বলে জানা গেছে।

Leave A Reply