Deshprothikhon-adv

পুঁজিবাজার ব্যাংক এক্সপোজার লিমিটের ফাঁদে !

0

bangladesh bankশেয়ারবার্তা ২৪ ডটকম, ঢাকা: পুঁজিবাজারে ব্যাংকগুলোর বিনিয়োগ সমন্বয়ের (ব্যাংক এক্সপোজার লিমিট) সময়সীমা বাড়ছে না। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ‘নীতি সহায়তা’ দেয়ার সিদ্ধান্তে বিভিন্ন জটিলতায় ভুগছে পুঁজিবাজার। সরকার ও সরকারের সহযোগী বিভিন্ন কর্তাদের অতীতের দেয়া বক্তব্যে ইতোমধ্যে বাজারে সৃষ্টি হয়েছে ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়া।

দেশের ৫৬ টি ব্যাংকের মধ্যে ৪৮টি ব্যাংকের পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ রয়েছে। এর মধ্যে ১২ টি ব্যাংকের বিনিয়োগসীমা অতিরিক্ত রয়েছে। আগামী ২৩ জুনের মধ্যে এসব ব্যাংকের বিনিয়োগ সহনীয় মাত্রায় আনতে হবে। এ সময়ের মধ্যে ব্যাংকগুলো শেয়ার ছেড়ে দিলে তৈরি হবে আশঙ্কার। লিমিট ইস্যুতে তৈরি হয়েছে ‘প্রকট আস্থাহীনতা’।

বিনিয়োগ সমন্বয়ের সময়সীমা না বাড়ানো ‘বাংলাদেশ ব্যাংকের ভুল সিদ্ধান্ত’ বলে মন্তব্য করেছেন দেশের শীর্ষ মার্চেন্ট ব্যাংক এএফসি ক্যাপিটাল লিমিটেডের সিইও মাহবুব এইচ মজুমদার।

সিইও বলেন, ভিন্ন মন্তব্যে কেন্দ্রীয় ব্যাংক সরকারের ইমেজ নষ্ট করছে। যেহেতেু অর্থমন্ত্রী, বাণিজ্যমন্ত্রী এবং প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক উপদেষ্টা এক্সপোজার লিমিট বাড়াতে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। তাই তাদের সুস্থ পুঁজিবাজার এবং সরকারের ইমেজ বৃদ্ধিতে তা করার দরকার ছিল।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক ভুল করেছে। আশা করি তারা তাদের পলিসি পরিবর্তন করে পুঁজিবাজারের স্বার্থে নতুন ঘোষণা দেবে বলেন মাহবুব। পুঁজিবাজারে ‘আস্থাহীনতায় আতঙ্ক তৈরি করছে’ বলেন এশিয়ান টাইগার ক্যাপিটাল পার্টনার্স অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক এমরান হাসান।

তিনি বলেন, ব্যাংকের বিনিয়োগ সীমা আদৌ বাড়ানো হবে কিনা, বাড়ালেও কবে কতদিন বাড়ানো হবে, তার কোনো কিছুই বোঝা যাচ্ছে না। সময়সীমা বাড়ানোর বিষয়টি নিয়ে এক ধরনের আস্থাহীনতা রয়েছে।

এমরান হাসান বলেন, শেয়ারের দাম কমলেও যদি লেনদেন বাড়ে এর অর্থ হচ্ছে পুঁজিবাজারে আস্থা নেই। বিনিয়োগকারীরা ভয়ে শেয়ার বিক্রি করে দিচ্ছেন। দাম আরো কমবে, এমন আতঙ্কে রয়েছেন সবাই।

‘আমরা টাকা চাচ্ছি না, সহায়তা চাচ্ছি না, কোনো ফান্ড চাচ্ছি না। আমরা শুধু পলিসি সাপোর্ট (নীতি সহায়তা) চাচ্ছি।’ব্যাংকগুলোর বিনিয়োগ সমন্বয় নিয়ে এসব কথা বলেন বাংলাদেশ মার্চেন্ট ব্যাংকার্স এসোসিয়েশনের (বিএমবিএ) সাবেক সভাপতি মোহাম্মদ এ হাফিজ। গত বছরের ১৫ নভেম্বর ব্যাংকের বিনিয়োগ সমন্বয়ের সময়সীমা দুই বছর বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছিলেন অর্থমন্ত্রী, তা হয়নি।

বিনিয়োগকারীদের মুনাফা গ্রহণ সম্পর্কে বলেন, বিনিয়োগকারীরা কম মুনাফা হলেই শেয়ার বিক্রি করে দিচ্ছেন, এ কারণেই বাজারে নেতিবাচক প্রভাব পড়ে। এর মূলে রয়েছে আস্থাহীনতা। আর আস্থাহীনতার মূলে রয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

‘বাংলাদেশ ব্যাংকের ভুল সিদ্ধান্ত’ মন্তব্য করে দেশের শীর্ষ মার্চেন্ট ব্যাংক এএফসি ক্যাপিটাল লিমিটেডের সিইও মাহবুব এইচ মজুমদার বলেছেন, আমরা বাংলাদেশ ব্যাংকের কাছে চাই শুধু পলিসি সাপোর্ট। টাকা নয়, পলিসি দিলেই পুঁজিবাজার তার গতি এমনিতেই ফিরে পাবে।

Leave A Reply