Deshprothikhon-adv

ব্রিটিশ রাজবধূর দুই রূপ!

0
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0Share on LinkedIn0Share on Yummly0Share on StumbleUpon0Share on Reddit0Flattr the authorEmail this to someonePrint this page

modi -britesশেয়ারবার্তা ২৪ ডটকম, ঢাকা: ব্রিটিশ রাজ পরিবারের সদস্য প্রিন্স উইলিয়াম এবং তার স্ত্রী প্রিন্সেস কেট মিডলটন প্রথমবারের মত ভারত সফরে এসেছেন। সেখানে সুবধাবঞ্চিত শিশুদের সঙ্গে স্বাক্ষাত করেছেন তিনি। কিন্তু ব্রিটিশ রাজবধূ ডাচেস অব ক্যামব্রিজ কেট মিডলটন ভারতের সবচেয়ে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের সঙ্গে ৫০ ইউরো মূল্যের একটি ফ্রক ও সাদামাটা ফ্লাট জুতা পড়ে খেলায় মেতে উঠেন। কিন্তু এর মাত্র এক অথবা দুই ঘণ্টা পরেই ব্রিটিশ এই রাজবধূ দ্রুত পোশাক পরিবর্তন করে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে সাক্ষাত করেন।

এতে কোনো সমস্যা থাকার কথা নয়, কিন্তু সমালোচকরা বলছেন, স্বল্প সময়ে ব্রিটিশ রাজবধূর দুই রূপ দেখা গেছে। পথশিশুদের সঙ্গে সাক্ষাতের সময় মাত্র ৫০ ইউরোর মেকসি পড়লেও মোদির সঙ্গে দুপুরের খাবারের আমন্ত্রণে ৮০০ ইউরোর লেইস পোশাকে অংশ নিতে দেখা যায়। শুধু তাই নয়, সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের সঙ্গে সাক্ষাতের সময় চুল স্বাভাবিক পরিপাটি থাকলেও মোদির সঙ্গে সাক্ষাতের সময় চুলে খোপা করেন।

নয়াদিল্লির বেশ কিছু তরুণের উদ্যোগে সালাম বালাক কল্যাণ ট্রাস্ট পরিচালিত হয়। এই তরুণরা শহরের রেল স্টেশনে ঘুরে পথশিশুদের সুন্দর ভবিষ্যতের জন্য কাজ করে। ব্রিটিশ রাজদম্পতি এই সংগঠনের আয়োজনে মঙ্গলবার রেল স্টেশনে শিশুদের সঙ্গে দেখা করেন।

ভারত ও ভুটানে তিনদিনের সফরে থাকা এই দম্পতি আজ ছয় হাজার শিশুর অনেকের সঙ্গে দেখা করেন। ভয়াবহ দারিদ্র থেকে বাঁচতে যারা প্রত্যেক বছর নয়াদিল্লির পানে ছুটে। ভারতের রাজধানীতে পৌঁছানোর পর এদের অনেকের আশ্রয় হয় কোনো পতিতালয় কিংবা মানব-পাচারকারীদের আশ্রয়ে। এসব শিশুকে উদ্ধার ও পরবর্তী বিভিন্ন পদক্ষেপ সম্পর্কে ওই সংগঠনের সদস্যদের কাছে বিস্তারিত শোনেন কেট।

Leave A Reply