Deshprothikhon-adv

জ্বালানী খাতের শেয়ারের দিকে বিনিয়োগকারীদের ঝোঁক!

0
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0Share on LinkedIn0Share on Yummly0Share on StumbleUpon0Share on Reddit0Flattr the authorEmail this to someonePrint this page

candle lagoশেয়ারবার্তা ২৪ ডটকম, ঢাকা: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বিদ্যুৎ ও জ্বালানী খাতের শেয়ারের দিকে ঝোঁক এখন বিনিয়োগকারীদের। দীর্ঘ সময় পর বাজার পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক আচরন করায় ভালো মৌলণ ভিত্তি শেয়ার হিসেবে পরিচিত জ্বালানী খাতের শেয়ারের দিকে ঝুঁকছেন বিনিয়োগকারীরা।

তাছাড়া জ্বালানী খাতের কয়েকটি শেয়ারের দর অনেক নিচে দামের পড়ে থাকায় এসব শেয়ারের প্রতি ঝোঁক বাড়ছে বলে মনে করছেন বাজার বিশ্লেষকরা। দীর্ঘদিন নেতিবাচক গন্ডির মধ্যে আটকে থাকা বাজার থেকে বিনিয়োগকারীদের অর্জিত অভিজ্ঞতার ফল এটি। কারণ, ভয়াবহ ধসের আগে দুর্বল মৌলভিত্তির শেয়ার কিনেই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিলেন বিনিয়োগকারীরা।

ধসের পর দীর্ঘ মন্দা কাটিয়ে উঠতে শুরু করেছে বাজার। বিশেষ করে সরকার পুঁজিবাজারের প্রতি মনোযোগী হওয়ায় পরিস্থিতি পাল্টাতে শুরু করেছে। ধীরে ধীরে সব শ্রেনীর বিনিয়োগকারী বাজারমুখী হতে শুরু করেছেন। তবে পূর্বের মতো এবার দুর্বল মৌলভিত্তির শেয়ার এড়িয়ে চলছেন বিনিয়োগকারীরা। এর পরিবর্তে মৌল ভিত্তি শেয়ারগুলোর প্রতি বেশি আগ্রহ প্রকাশ করছেন বিনিয়োগকারীরা।

নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে, পুঁজিবাজারে বড় মূলধনি কোম্পানি, বিশেষ করে বিদ্যুৎ জ্বালানী ও বহুজাতিক কোম্পানিতে বিনিয়োগ বাড়াচ্ছেন বিদেশী বিনিয়োগকারীরা। এছাড়া সরকারি মালিকানাধীন জ্বালানি ও টেলিযোগাযোগ খাতের কোম্পানিতেও তাদের আগ্রহ সৃষ্টি হয়েছে।

ফলে রোববার টপটেন গেইনার তালিকায় উঠে এসেছে তিন তেল কোম্পানি। কোম্পানিগুলো হচ্ছে- যমুনা অয়েল, মেঘনা পেট্রোলিয়াম ও পদ্মা অয়েল। ডিএসইর তথ্য অনুযায়ী, আজ যমুনা অয়েল ১৫ টাকা ৫০ পয়সা বা ৯ দশমিক ৮৫ শতাংশ দর বেড়ে গেইনার তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে। এদিন শেয়ারটি সর্বশেষ লেনদেন হয় ১৭২ টাকা ৯০ পয়সা দরে। আজ কোম্পানির ৪ লাখ ৪০ হাজার ৯৫টি শেয়ার ১হাজার ৪০৯ বার লেনদেন হয়।

গেইনার তালিকার চতুর্থ স্থানে রয়েছে মেঘনা পেট্রোলিয়াম। এদিন শেয়ারটি সর্বশেষ ১৫৮ টাকা ৫০ পয়সা দরে লেনদেন হয়।এই কোম্পানির শেয়ার দর বেড়েছে ১২ টাকা ৮০ পয়সা বা ৮ দশমিক ৭৯ শতাংশ।আজ কোম্পানির ৫ লাখ ২২ হাজার ৪৪২টি শেয়ার ১ হাজার ৭৯৩ বার লেনদেন হয়।

এছাড়া তালিকার অষ্টম স্থানে রয়েছে পদ্মা অয়েল। আজ শেয়ারটি সর্বশেষ লেনদেন হয় ১৮৫ টাকায়।এই কোম্পানির শেয়ার দর বেড়েছে ১১ টাকা ৫ পয়সা বা ৬ দশমিক ৬৩ শতাংশ।শতাংশ। আজ কোম্পানির ১ লাখ ৯৯ হাজার ৭৪৮টি শেয়ার ১ হাজার ১৯ বার লেনদেন হয়।

বিশ্লেষকদের মতে, আলোচিত তিন কোম্পানি জুন ক্লোজিং। বছর শেষে এই কোম্পানিগুলো ভালো লভ্যাংশ দিতে পারে এমন আশায় রয়েছেন বিনিয়োগকারীরা। তাই এখন থেকেই শীর্ষস্থানীয় তিন তেল কোম্পানির প্রতি আগ্রহ বেড়েছে বিনিয়োগকারীদের।

বাজার পর্যবেক্ষণে দেখা যায়, বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ ছিল জ্বালানী খাতের শেয়ারের দিকে। যমুনা অয়েল, মেঘনা পেট্রোলিয়াম ও পদ্মা অয়েল। প্রতিষ্ঠান তিনটি শেয়ারে দাম বেড়েছে। লেনদেনের শীর্ষে থাকা প্রতিটি কোম্পানিই ভালো মৌলের। এছাড়া এসব জ্বালানী খাতের শেয়ারের ওপর বিনিয়োগকারীদের বিশেষ ঝোঁক তৈরি হয়েছে। বিদেশী বিনিয়োগকারীরা যে কয়েকটি শেয়ারকে তাদের পছন্দের তালিকায় রাখেন তার মধ্যে জ্বালানী খাতের এসব কোম্পানি অন্যতম। তাই এই শেয়ারের লেনদেন বেশি হয়েছে।

এ বিষয়ে বাজার বিশ্লেষকরা জানান, বাজারে লেনদেন এবং সূচক অনেকটা স্বাভাবিক রয়েছে। ফলে বিনিয়োগকারীদের মধ্যে আস্থা তৈরি হতে শুরু করছে। তবে বাজারে কিছু নন ফান্ডামেন্টাল শেয়ারের মুভমেন্ট বাড়ছে। এতে বাজারে দীর্ঘদিন ধরে যারা লোকসানের মধ্যে রয়েছেন তারা হতাশ হয়ে উঠছেন। এ পরিস্থিতিতে অনেকে লোকসানে থাকা শেয়ারের দাম না বাড়ার কারণে সেগুলো হাতছাড়া করে দিচ্ছেন।

বিশ্লেষকরা আরো জানান, কোনো কারণে নন ফান্ডামেন্টাল শেয়ারের দর যদি পড়ে যায় তবে বেশিরভাগ বিনিয়োগকারীর লোকসান হয়। কারণ, অধিকাংশ বিনিয়োগকারী নন-ফান্ডামেন্টাল শেয়ারের দ্রুত মুনাফার আশায় বিনিয়োগ করেন। তাই বর্তমান বাজার সম্পর্কে সব ধরণের অভিজ্ঞতা ও দক্ষতা নিয়ে বিনিয়োগকারীদের লেনদেনে অংশগ্রহণ করা উচিত বলে বিশ্লেষকরা মনে করছেন।

Leave A Reply