Deshprothikhon-adv

আইপিও নিয়ম বহির্ভূতভাবে দেওয়া হয়নি: খাইরুল

0
Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0Share on LinkedIn0Share on Yummly0Share on StumbleUpon0Share on Reddit0Flattr the authorEmail this to someonePrint this page

khirulঢাকা ৯ মার্চ, শেয়ার বার্তা ২৪ ডটকম: পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের চেয়ারম্যান খায়রুল হোসেন বলেছেন, গত ৫ বছরে একটি কোম্পানির প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) অনুমোদনও নিয়ম বহির্ভূতভাবে দেওয়া হয়নি । আমরা দায়িত্ব নেওয়ার পর বাজারের স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা বাড়াতে নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি। বাজারে নজরদারি বৃদ্ধি এবং অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। অথচ অনেকে নানা বিষয়ে গুজব ছড়াচ্ছেন ও অনেক বিশ্লেষক ভুল মন্তব্য করছেন।

মোবাইলের মাধ্যমে শেয়ারবাজারে লেনদেন করতে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) নতুন অ্যাপস ‘ডিএসই-মোবাইল’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে মোবাইল অ্যাপসটির উদ্বোধন করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

২০১০ সালে শেয়ারবাজারে ধসের পর বিএসইসি পুনর্গঠন করা হয়। পুনর্গঠিত বিএসইসি বিগত সময়ে যেসব কোম্পানির আইপিও অনুমোদন দিয়েছে তাদের মধ্যে প্রিমিয়ামে অনুমোদন পাওয়া কয়েকটি কোম্পানির বাজার দর বরাদ্দ মূল্যের নিচে নেমে গেছে।

বাজার সংশ্লিষ্টদের অভিযোগ, মৌলভিত্তির তুলনায় বেশি দরে প্রিমিয়ামের মাধ্যমে কোম্পানিগুলোর আইপিও অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এমনকি খোদ অর্থ মন্ত্রলায়ের পক্ষ থেকে বিএসইসি চেয়ারম্যান খায়রুল হোসেনকে আরও সতর্ক থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছিল। সে চিঠিতে আরও পরীক্ষা নিরীক্ষা করে আইপিও মূল্য নির্ধারণের পর অনুমোদন দেওয়ার জন্য বলা হয়েছিল। ২০১৪ সালের ডিসেম্বরে অর্থ মন্ত্রালয় থেকে এ চিঠি দেওয়া হয়েছিল।

তবে বিএসইসি চেয়ারম্যান অর্থমন্ত্রীর উপস্থিতিতেই আইপিও অনুমোদন নিয়ে উঠা অভিযোগ নাকচ করে দিয়েছেন। এদিকে মোবাইল অ্যাপসটির উদ্বোধন করে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেন, অ্যাপসটি চালু হওয়ায় বিনিয়োগকারীদের লেনদেনের জন্য ব্রোকারেজ হাউজ বা মতিঝিলে আসতে হবে না। তারা মোবাইলের মাধ্যমে যে কোনো প্রান্ত থেকে লেনদেন করতে পারবে। এতে মতিঝিলে বিনিয়োগকারীদের উপস্থিতি কমে আসবে। আর এতে বিনিয়োগকারীদের সমাবেশ ও বিক্ষোভ কমে যাবে।

উপযুক্ত সময়ে ডিএসই-মোবাইল অ্যাপসটি উদ্বোধন করা হয়েছে বলে মন্তব্য করে অর্থমন্ত্রী আরও বলেন, এতে ডিএসই আরেকটু চাঙ্গা হবে। এ ছাড়া শেয়ারবাজারও এতে ভাইব্রেন্ট হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি। বুধবার সকালে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ডিএসইর স্বতন্ত্র পরিচালক ওয়ালি-উল-ইসলামের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ডিএসইর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. স্বপন কুমার বালা।

বিএসইসির চেয়ারম্যান ড. এম খায়রুল হোসেন তার বক্তব্যে আরও বলেন, ডিএসই’র অ্যাপসটি উদ্বোধনের মাধ্যমে বিনিয়োগকারীরা তাদের শেয়ার, লেনদেনের পরিমাণসহ শেয়ারবাজারের বিভিন্ন তথ্য জানতে পারবেন। এতে করে বাজারের স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা বৃদ্ধি পাবে। এ ছাড়া দীর্ঘদিন ধরে ব্রোকারেজ হাউজের শাখা খোলার যে দাবি ছিল তা পূরণ হবে।

Leave A Reply