Deshprothikhon-adv

৫০ কোম্পানির ইপিএস প্রকাশ, বেড়েছে ৩৪টি, কমেছে ১৬টি

0
Share on Facebook2Share on Google+0Tweet about this on TwitterPin on Pinterest0Share on LinkedIn0Share on Yummly0Share on StumbleUpon0Share on Reddit0Flattr the authorEmail this to someonePrint this page

শেয়ারবার্তা ২৪ ডটকম, ঢাকা: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ৫০ কোম্পানি তাদের প্রান্তিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। এর মধ্যে ৩৪টি কোম্পানির ইপিএস বাড়লেও ১৬ কোম্পানির ইপিএস কমেছে। তবে সবচেয়ে মুনাফায় ধ্বস নেমেছে আফতাব অটোর। নিম্নে কোম্পানিগুলোর তথ্য তুলে ধরা হলো:

প্যাসিফিক ডেনিমস লিমিটেড: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত প্যাসিফিক ডেনিমস লিমিটেড। এই সময় কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ২২.২২ শতাংশ।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৪৪ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.৩৬ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ০.০৮ টাকা বা ২২.২২ শতাংশ।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.৩০ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৭.০৯ টাকা।

এমবি ফার্মা: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত এমবি ফার্মা প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৮৪ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.৭৫ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ১.২২ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২৬.৫৩ টাকা।

প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে । এই সময় কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ৬৩ শতাংশ।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৬২ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.৩৮ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.৩৫ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২১.৪০ টাকা।

যমুনা অয়েল লিমিটেড: শেয়ারবাজারে তালিকাভূক্ত যমুনা অয়েল লিমিটেড ৩০ জুন, ২০১৮ সমাপ্ত অর্থবছরে বিনিয়োগকারীদের জন্য ১৩০ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে। আজ অনুষ্ঠিত কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদ সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। একই সভায় কোম্পানিটি প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর’১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানির ইপিএস আগের তুলনায় প্রায় সাড়ে ২০ শতাংশ বেড়েছে।

জানা গেছে, ৩০ জুন, ২০১৮ সমাপ্ত অর্থবছরে কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২৫.৪৫ টাকা। যা এর আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ২০.৩১ টাকা।

এছাড়া শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৫১.২৩ টাকা আর শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ১৭০.৩৪ টাকা।

ঘোষিত ডিভিডেন্ড বিনিয়োগকারীদের সম্মতিক্রমে অনুমোদনের জন্য এ কোম্পানির বার্ষিক সাধারণ সভা(এজিএম) ২০১৯ সালের ২ ফেব্রুয়ারী সকাল ১১টায় ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টাল, চট্টগ্রাম অনুষ্ঠিত হবে। আর এসংক্রান্ত রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ২৭ ডিসেম্বর।

এদিকে, প্রথম প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর’১৮) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৬.২৯ টাকা। যা এর আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ৫.২২ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ১.০৭ টাকা বা ২০.৪৯ শতাংশ।

এছাড়া শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ২৫.৬১ টাকা আর শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ১৭৬.১৫ টাকা।

বিডি থাই অ্যালুমিনিয়াম: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বিডি থাই অ্যালুমিনিয়াম প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.২১ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.১৯ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.০১ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২৮.৯৯ টাকা।

মেঘনা সিমেন্ট মিলস লিমিটেড প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত মেঘনা সিমেন্ট মিলস লিমিটেড। এই সময় কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ১২২.৭২ শতাংশ। কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৪৯ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.২২ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ০.২৭ টাকা বা ১২২.৭২ শতাংশ।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৯.১৬ টাকা ঋণাত্নক এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৩৮.৮২ টাকা।

বসুন্ধরা পেপার মিলস: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বসুন্ধরা পেপার মিলস।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.০৪ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.৬১ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.৬০ টাকা (ঋণাত্মক) এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৪৩.৪৮ টাকা।

এমজেএল বিডি: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত এমজেএল বিডি। কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার সমন্বিত প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৪২ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) ছিল ১.৭০ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ২.২৭ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৩৮.৯৯ টাকা।

বিডিকম অনলাইন: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বিডিকম অনলাইন। কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৩৫ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.২৪ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.৫৩ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৫.৯০ টাকা।

আরএসআরএম: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত আরএসআরএম।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৭৫ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ১.৮৩ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.০৮ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৪৬.৪৯ টাকা।

আলহাজ্ব টেক্সটাইল লিমিটেড: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি আলহাজ্ব টেক্সটাইল লিমিটেড। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানির মুনাফা থেকে লোকসানে অবস্থান করছে। জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ০.১৩৭ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.২১ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ২.২৫ টাকা ঋণাত্নক এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১২.২৫ টাকা।

ডেল্টা স্পিনার্স: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ডেল্টা স্পিনার্স।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.০৭ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) ছিল ০.০৫ টাকা।

এছাড়া শেয়ার প্রতি সমন্বিত সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৩.৪২ টাকা।

ইনটেক লি: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ইনটেক লি:।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৮৫ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি লোকসান ছিল ০.০৯ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.৭৪ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১২.২৯ টাকা।

সেন্ট্রাল ফার্মাসিটিক্যালস লিমিটেড: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি সেন্ট্রাল ফার্মাসিটিক্যালস লিমিটেড। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানির ইপিএস ১৩৮.৪৬ শতাংশ বেড়েছে।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৩১ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.১৩ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ০.১৮ টাকা বা ১৩৮.৪৬ শতাংশ।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.০৩ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৬.১০ টাকা।

ডেফোডিল কম্পিউটার: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ডেফোডিল কম্পিউটার্স।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৪১ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.৬২ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ১.২৩ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৩.৯৯ টাকা।

ওয়াটা কেমিক্যাল: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ওয়াটা কেমিক্যাল।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩.৫৩ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ১.১৭ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.৯৭ টাকা (ঋণাত্মক) এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৮০.০৮ টাকা।

সমতা লেদার: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত সমতা লেদার।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ০.০৪ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি লোকসান ছিল ০.০১ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.০৩ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৪.৩৮ টাকা।

হা-ওয়েল টেক্সটাইল লিমিটেড: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি হা-ওয়েল টেক্সটাইল লিমিটেড। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানির ইপিএস ১৮.৩৩ শতাংশ বেড়েছে।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৭১ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.৬০ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ০.১১ টাকা বা ১৮.৩৩ শতাংশ।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ১.০৪ টাকা ঋণাত্নক এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২৯.৭৩ টাকা।

শেফার্ড ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি শেফার্ড ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানির ইপিএস ৮২.৬০ শতাংশ বেড়েছে।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৪২ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.২৩ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ০.১৯ টাকা বা ৮২.৬০ শতাংশ।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৩.১২ টাকা ঋণাত্নক এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৮.২৪ টাকা।

কাট্টলি টেক্সটাইল: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কাট্টলি টেক্সটাইল।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৫১ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.৩০ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.০৭ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৪.৩৬ টাকা।

বিচ হ্যাচারি: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বিচ হ্যাচারি।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ০.০৯ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি লোকসান ছিল ০.১০ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.০০ টাকা (ঋণাত্মক) এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১০.৪১ টাকা।

কনফিডেন্স সিমেন্ট লিমিটেড: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি কনফিডেন্স সিমেন্ট লিমিটেড। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানির ইপিএস প্রায় সাড়ে ২১ শতাংশ বেড়েছে।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৮১ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ১.৪৯ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে০.৩২ টাকা বা ২১.৪৭ শতাংশ।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ১.৪৬ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৭৭.৮৭ টাকা।

ফু-ওয়াং ফুডস: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ফু-ওয়াং ফুডস।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.১৮ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.১৪ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.২১ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১২.১৭ টাকা।

জাহিন স্পিনিং: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত জাহিন স্পিনিং।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৩১ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.৪৩ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.২০ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৩.৭১ টাকা।

অগ্নি সিস্টেমস লিমিটেড: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি অগ্নি সিস্টেমস লিমিটেড।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৩১ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.২৬ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.৩৮ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৫.১৯ টাকা।

সিমটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি সিমটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৫৪ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.৩৩ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.৮৪ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২৪.১৪ টাকা।

এসকে ট্রিমস: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত এসকে ট্রিমস।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৭১ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.১৫ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.০৮ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৩.৫৪ টাকা।

ইন্দো-বাংলা ফার্মাসিটিক্যাল লিমিটেড: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি ইন্দো-বাংলা ফার্মাসিটিক্যাল লিমিটেড।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৩১ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.৩৬ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.৪৩ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৩.২০ টাকা।

ইনট্রাকো রিফুয়েলিং স্টেশন: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ইনট্রাকো রিফুয়েলিং স্টেশন।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.১৩ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) ছিল ০.০২ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি সমন্বিত কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.২১ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সমন্বিত সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১২.৯৭ টাকা।

এইচ আর টেক্সটাইল লিমিটেড: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি এইচ আর টেক্সটাইল লিমিটেড।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৩৮ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.৩০ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৩.৭১ টাকা ঋণাত্নক এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৫.৭৫ টাকা।

কুইন সাউথ টেক্সটাইল: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কুইন সাউথ টেক্সটাইল।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৫২ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.৪৬ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.২৩ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৮.২৫ টাকা।

সায়হাম কটন মিলস লিমিটেড: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি সায়হাম কটন মিলস লিমিটেড।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৩১ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.২৭ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.১৬ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২২.৯৬ টাকা।

কোহিনূর কেমিক্যালস: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোহিনূর কেমিক্যালস।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.৮৩ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ২.৬৪ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৩.৩৮ টাকা (ঋণাত্মক) এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৫৩.৬৯ টাকা।

রংপুর ফাউনড্রি: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত রংপুর ফাউনড্রি।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.১৪ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ১.১২ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ২.৯০ টাকা (ঋণাত্মক) এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২৬.৪৫ টাকা।

সিনোবাংলা ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি সিনোবাংলা ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৩৫ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.২৪ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৩.৯৯ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২৭.২৯ টাকা।

স্টাইল ক্র্যাফ্ট: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত স্টাইল ক্র্যাফ্ট।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৯.৪৮ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৫.৬৮ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ২৯.৭১ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৩২৭.৪১ টাকা।

এ্যাপোলো ইস্পাত কমপেক্স লিমিটেড: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি এ্যাপোলো ইস্পাত কমপেক্স লিমিটেড। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানির মুনাফা থেকে লোকসানে অবস্থান করছে।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ০.০৯ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.০৭ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.৩৮ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২০.১০ টাকা।

ইমাম বাটন: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ইমাম বাটন।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ০.০৭ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি লোকসান ছিল ০.১৫ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.০১ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৫.৭৪ টাকা।

ফার্মা এইডস লিমিটেড: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি ফার্মা এইডস লিমিটেড।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪.৬৩ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৩.৮০ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৬.০৬ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৬৫.৪০ টাকা।

আফতাব অটো: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত আফতাব অটো।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৫৪ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ১.০৫ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৮.২৪ টাকা (ঋণাত্মক) এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৬১.৪৩ টাকা।

দেশ গার্মেন্টস: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত দেশ গার্মেন্টস।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৩৮ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ১.৪৫ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ২.১১ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২২.১৩ টাকা।

ফাইন ফুডস: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ফাইন ফুডস।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.০২৬ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.০৪২ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.০১৬ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১০.৯৩৪ টাকা।

সোনারগাঁও টেক্সটাইল: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত সোনারগাঁও টেক্সটাইল।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ০.৩৩ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি লোকসান ছিল ০.৩১ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ১.৫৯ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২৮.১৮ টাকা।

রেনাটা লি: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত রেনাটা লি:।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ১২.০২ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ১০.১০ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি সমন্বিত কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ২১.৯৪ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সমন্বিত সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২৩৩.৩৫ টাকা।

অ্যাডভেন্ট ফার্মা: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত অ্যাডভেন্ট ফার্মা।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৬১ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.৩৪ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.৮০ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৩.৩৫ টাকা।

ইউনিক হোটেল এন্ড রিসোর্টস: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ইউনিক হোটেল এন্ড রিসোর্টস।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৫৪ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.৫০ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ২.৩৬ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৮৯.৩৫ টাকা।

আরডি ফুড: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত আরডি ফুড। প্রতিবেদন অনুযায়ী ইপিএস কমেছে কোম্পানিটির।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.১৪ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.১৭ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.৩৪ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৫.৬৮ টাকা।

স্ট্যান্ডার্ড সিরামিক লিমিটেড: প্রথম প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি স্ট্যান্ডার্ড সিরামিক লিমিটেড। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানির লোকসান থেকে মুনাফায় ফিরেছে।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৩৭ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি লোকসান ছিল ০.৪০ টাকা।

এছাড়াও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ১.১৯ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৫.৩৩ টাকা।

Comments are closed.